ঢাকা , বৃহস্পতিবার, ২০ জুন ২০২৪, ৫ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

অভিযানের খবরে ডিম-আলু-পেঁয়াজের দাম কমলো

  • ডেস্ক :
  • আপডেট সময় ০১:৫৬ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৬ সেপ্টেম্বর ২০২৩
  • 102
অনলাইন ডেস্ক : বাজারে অস্থিরতা কমাতে প্রথমবারের মতো তিন কৃষি পণ্যের দাম বেঁধে দিয়েছে সরকার। সেগুলো হলো আলু, দেশি পেঁয়াজ ও ডিম। গত বৃহস্পতিবার সচিবালয়ে সংবাদ সম্মেলনে বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনিশি এই দাম ঘোষণা করেন। তবে এখনও তা কার্যকর হয়নি। দাম বেঁধে দেওয়ার পরদিন শুক্রবার থেকেই কাওরান বাজার, শান্তিনগর ও তুরাগ এলাকার নতুন বাজারে খোঁজ নিয়ে দেখা যায়, নির্ধারিত দরের চেয়ে অনেক বেশিতে এসব পণ্য বিক্রি হচ্ছে।এ অবস্থায় বাজার নিয়ন্ত্রণে শনিবার (১৬ সেপ্টেম্বর) রাজধানীর নিউমার্কেট এলাকায় অভিযান চালাতে যায় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর। খবর শোনার পর ব্যবসায়ীরা এসব পণ্যের দাম কমিয়ে দেন।অভিযানের খবর শোনার পর ব্যবসায়ীরা দোকানে মূল্য তালিকা ঝুলিয়ে দেন। এ সময় কিছু দোকানে আলু, পেঁয়াজ, ডিম কম আগের চেয়ে কম দামে বিক্রি করতে দেখা যায়। যদিও সকাল থেকে বেশিরভাগ দোকানে মূল্য তালিকা দেখা যায়নি।ব্যবসায়ীরা বলছেন, বেশি দামে আগে এসব পণ্য কিনে রাখায় তারা সরকার নির্ধারিত দামে বিক্রি করতে পারছেন না।খুচরা ব্যবসায়ীদের অনেকেই জানান, তারা সরকারের নির্ধারিত এ দর সম্পর্কে কিছু জানেন না। আবার কেউ কেউ বলেছেন, সরকার যে দরে ডিম, আলু, পেঁয়াজের দর নির্ধারণ করেছে তাতে বিক্রি করা সম্ভব নয়। কারণ, পাইকারিতেই এসব পণ্যের দাম বেশি। আড়ত থেকে যে দরে ডিম কেনা পড়ে, তাতে প্রতি হালিতে সামান্য মুনাফায় বিক্রি হয়। গত কিছুদিন ধরেই পণ্য তিনটি নিয়ে বাজারে অস্থিরতা চলছে। সংশ্লিষ্ট সূত্র বলেছে, সিন্ডিকেটের কারসাজির কারণেই তিনটি পণ্যের দামই লাগামহীনভাবে বেড়েছে। ফলে ভোগান্তি পোহাতে হচ্ছে স্বল্প আয়ের মানুষকে। এ অবস্থায় গত বৃহস্পতিবার বাণিজ্য মন্ত্রণালয় ‘নিত্যপ্রয়োজনীয় কৃষিপণ্যের উত্পাদন, চাহিদা ও মূল্য পরিস্থিতি পর্যালোচনা’ শীর্ষক বৈঠকে আলু, পেঁয়াজ ও ডিমের দর নির্ধারণ করে দেয়। বেঁধে দেওয়া দর অনুযায়ী, খুচরা পর্যায়ে প্রতিটি ডিমের দাম হবে সর্বোচ্চ ১২ টাকা অর্থাৎ এক হালি ৪৮ টাকা, প্রতি কেজি আলু ৩৬ টাকা এবং দেশি পেঁয়াজ ৬৫ টাকা।

 

ট্যাগস
জনপ্রিয় সংবাদ

সিলেটে বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত বিদ্যুৎ উপকেন্দ্রে সেনাবাহিনী মোতায়েন করা হয়েছে

অভিযানের খবরে ডিম-আলু-পেঁয়াজের দাম কমলো

আপডেট সময় ০১:৫৬ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৬ সেপ্টেম্বর ২০২৩
অনলাইন ডেস্ক : বাজারে অস্থিরতা কমাতে প্রথমবারের মতো তিন কৃষি পণ্যের দাম বেঁধে দিয়েছে সরকার। সেগুলো হলো আলু, দেশি পেঁয়াজ ও ডিম। গত বৃহস্পতিবার সচিবালয়ে সংবাদ সম্মেলনে বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনিশি এই দাম ঘোষণা করেন। তবে এখনও তা কার্যকর হয়নি। দাম বেঁধে দেওয়ার পরদিন শুক্রবার থেকেই কাওরান বাজার, শান্তিনগর ও তুরাগ এলাকার নতুন বাজারে খোঁজ নিয়ে দেখা যায়, নির্ধারিত দরের চেয়ে অনেক বেশিতে এসব পণ্য বিক্রি হচ্ছে।এ অবস্থায় বাজার নিয়ন্ত্রণে শনিবার (১৬ সেপ্টেম্বর) রাজধানীর নিউমার্কেট এলাকায় অভিযান চালাতে যায় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর। খবর শোনার পর ব্যবসায়ীরা এসব পণ্যের দাম কমিয়ে দেন।অভিযানের খবর শোনার পর ব্যবসায়ীরা দোকানে মূল্য তালিকা ঝুলিয়ে দেন। এ সময় কিছু দোকানে আলু, পেঁয়াজ, ডিম কম আগের চেয়ে কম দামে বিক্রি করতে দেখা যায়। যদিও সকাল থেকে বেশিরভাগ দোকানে মূল্য তালিকা দেখা যায়নি।ব্যবসায়ীরা বলছেন, বেশি দামে আগে এসব পণ্য কিনে রাখায় তারা সরকার নির্ধারিত দামে বিক্রি করতে পারছেন না।খুচরা ব্যবসায়ীদের অনেকেই জানান, তারা সরকারের নির্ধারিত এ দর সম্পর্কে কিছু জানেন না। আবার কেউ কেউ বলেছেন, সরকার যে দরে ডিম, আলু, পেঁয়াজের দর নির্ধারণ করেছে তাতে বিক্রি করা সম্ভব নয়। কারণ, পাইকারিতেই এসব পণ্যের দাম বেশি। আড়ত থেকে যে দরে ডিম কেনা পড়ে, তাতে প্রতি হালিতে সামান্য মুনাফায় বিক্রি হয়। গত কিছুদিন ধরেই পণ্য তিনটি নিয়ে বাজারে অস্থিরতা চলছে। সংশ্লিষ্ট সূত্র বলেছে, সিন্ডিকেটের কারসাজির কারণেই তিনটি পণ্যের দামই লাগামহীনভাবে বেড়েছে। ফলে ভোগান্তি পোহাতে হচ্ছে স্বল্প আয়ের মানুষকে। এ অবস্থায় গত বৃহস্পতিবার বাণিজ্য মন্ত্রণালয় ‘নিত্যপ্রয়োজনীয় কৃষিপণ্যের উত্পাদন, চাহিদা ও মূল্য পরিস্থিতি পর্যালোচনা’ শীর্ষক বৈঠকে আলু, পেঁয়াজ ও ডিমের দর নির্ধারণ করে দেয়। বেঁধে দেওয়া দর অনুযায়ী, খুচরা পর্যায়ে প্রতিটি ডিমের দাম হবে সর্বোচ্চ ১২ টাকা অর্থাৎ এক হালি ৪৮ টাকা, প্রতি কেজি আলু ৩৬ টাকা এবং দেশি পেঁয়াজ ৬৫ টাকা।