ঢাকা , শুক্রবার, ২১ জুন ২০২৪, ৭ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

নরসিংদীর শিবপুরে সড়ক দুর্ঘটনা একই রাতে মাইক্রোবাস-ট্রাক-অটোরিকশার সংঘর্ষে প্রাণ গেল ৬ জনের

  • ডেস্ক :
  • আপডেট সময় ০৫:১৩ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৬ সেপ্টেম্বর ২০২৩
  • 81

অনলাইন ডেস্ক : ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের নরসিংদীর শিবপুরে মাইক্রোবাস ও ট্রাকের মুখোমুখি সংঘর্ষে ৩ জন নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন আরও ৭জন। শুক্রবার দিবাগত রাত ২ টার দিকে শিবপুর উপজেলার শ্রীফুলিয়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। অপরদিকে একই রাত ১০টায় রায়পুরায় ট্রাক ও সিএনজি অটোরিকশার সংঘর্ষে ৩ জন নিহত হয়েছে। এ ঘটনায় আহত হয়েছে আরও ৩ জন। 

নরসিংদী ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের সিনিয়র স্টেশন মাস্টার আব্দুল মান্নান আনসারী বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, আমরা খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে গাড়ির ভেতর থেকে তিনজনকে মৃত অবস্থায় উদ্ধার করি। আহতদের উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠাই। পরে মরদেহগুলো হাইওয়ে পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয়।

নিহতরা হলো- চাঁদপুর জেলার মতলব থানার মুন্সীরকান্দি গ্রামের মৃত আবুল কাশেমের ছেলে এফাজুল হক (৫০) ও তার ছেলে মোস্তাকিম (১৮) এবং মাইক্রোবাসের চালক নারায়ণগঞ্জ জেলার বন্দর থানার সাবদীবাজার এলাকার সুভাস চন্দ্রের ছেলে সাগর চন্দ্র (৩২)।

আর আহতরা হলো- নিহত এফাজুল হকের স্ত্রী মুক্তা আক্তার (৪৫), ছেলে আশরাফুল প্রধান (১৪), মেয়ে ইলমা আক্তার (১২), মাদারীপুর জেলার শিবচর থানার ফারুক হোসেন (৫০), হাসিনা বেগম (৪২), সানজিদা আক্তার (১৬) ও নূর মোহাম্মদ (৭)। তাদের নরসিংদী ১০০ শয্যা বিশিষ্ট হাসপালে ভর্তি করে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে। নিহতদের পরিবারের বরাতে হাইওয়ে পুলিশ জানায়, বৃহস্পতিবার রাতে নারায়ণগঞ্জ থেকে মাইক্রোবাসে করে দুটি পরিবার সিলেটে মাজার জিয়ারতে গিয়েছিল। জিয়ারত শেষে তারা শুক্রবার রাতে নারায়ণগঞ্জ ফিরছিল। তাদের বহনকারী মাইক্রোবাসটি ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের শিবপুরের শ্রীফুলিয়া এলাকায় পৌঁছালে বিপরীত দিক থেকে আসা সিলেটগামী একটি ট্রাকের সঙ্গে মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে মাইক্রোবাসটি একেবারে দুমড়ে-মুচড়ে যায়। ঘটনাস্থলেই চালকসহ তিনজন নিহত হন। পরে ৯৯৯ এর মাধ্যমে খবর পেয়ে দুর্ঘটনাস্থলে এসে আহতদের উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠায় ফায়ার সার্ভিস।

ইটাখোলা হাইওয়ে পুলিশের উপ-পরিদর্শক (এসআই) আবুল খায়ের বলেন, বেপরোয়া গতি ও ওভারটেকিং এর কারণে এই দুর্ঘটনা ঘটেছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। আমরা ট্রাক ও মাইক্রোবাস জব্দ করে থানায় নিয়ে এসেছি। আর মরদেহগুলো নরসিংদী সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। স্বজনরা মরদেহগুলো বিনা ময়নাতদন্তে নিয়ে যাওয়ার আবেদন করেছে। ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানানো হয়েছে, নির্দেশক্রমে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

এর আগে নরসিংদীর রায়পুরায় ট্রাক ও সিএনজি অটোরিকশার সংঘর্ষে ৩ জন নিহত হয়েছে। এঘটনায় আহত হয়েছে আরও ৩ জন। শুক্রবার (১৫ সেপ্টেম্বর) রাত পৌনে ১০ টার দিকে উপজেলার ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের  ভিটিমরজালের শিমুলতলী এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ভৈরব হাইওয়ে মডেল থানার এসআই তপর উদ্দিন।

নিহতরা হলো- দোলনা বেগম রায়পুরা উপজেলার উত্তর বাখরনগর ইউনিয়নের বড়চর গ্রামের মো: কাসেম মিয়ার স্ত্রী, তার নাতি আরিয়ান ও বেলাব উপজেলার ধুকুন্দি গ্রামের রানা মিয়া। ঢাকা-সিলেট মহাসড়কে প্রাণ যায় ছয় যাত্রীর। পৃথক এই দূর্ঘটনায় আহত হয় আরে ১০ জন। 

নরসিংদীর ১০০ শয্যা বিশিষ্ট হাসপালের আরএমও ডা. পলাশ মোল্লা বলেন, সড়ক দুর্ঘটনায় আহতদের হাসপালে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে। আর নিহতদের লাশ নরসিংদী সদর হাসপালের মর্গে পাঠানো হয়েছে।

ট্যাগস
জনপ্রিয় সংবাদ

মিয়ানমার থেকে গুলি হলে আমরাও পাল্টা গুলি করব : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

নরসিংদীর শিবপুরে সড়ক দুর্ঘটনা একই রাতে মাইক্রোবাস-ট্রাক-অটোরিকশার সংঘর্ষে প্রাণ গেল ৬ জনের

আপডেট সময় ০৫:১৩ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৬ সেপ্টেম্বর ২০২৩

অনলাইন ডেস্ক : ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের নরসিংদীর শিবপুরে মাইক্রোবাস ও ট্রাকের মুখোমুখি সংঘর্ষে ৩ জন নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন আরও ৭জন। শুক্রবার দিবাগত রাত ২ টার দিকে শিবপুর উপজেলার শ্রীফুলিয়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। অপরদিকে একই রাত ১০টায় রায়পুরায় ট্রাক ও সিএনজি অটোরিকশার সংঘর্ষে ৩ জন নিহত হয়েছে। এ ঘটনায় আহত হয়েছে আরও ৩ জন। 

নরসিংদী ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের সিনিয়র স্টেশন মাস্টার আব্দুল মান্নান আনসারী বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, আমরা খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে গাড়ির ভেতর থেকে তিনজনকে মৃত অবস্থায় উদ্ধার করি। আহতদের উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠাই। পরে মরদেহগুলো হাইওয়ে পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয়।

নিহতরা হলো- চাঁদপুর জেলার মতলব থানার মুন্সীরকান্দি গ্রামের মৃত আবুল কাশেমের ছেলে এফাজুল হক (৫০) ও তার ছেলে মোস্তাকিম (১৮) এবং মাইক্রোবাসের চালক নারায়ণগঞ্জ জেলার বন্দর থানার সাবদীবাজার এলাকার সুভাস চন্দ্রের ছেলে সাগর চন্দ্র (৩২)।

আর আহতরা হলো- নিহত এফাজুল হকের স্ত্রী মুক্তা আক্তার (৪৫), ছেলে আশরাফুল প্রধান (১৪), মেয়ে ইলমা আক্তার (১২), মাদারীপুর জেলার শিবচর থানার ফারুক হোসেন (৫০), হাসিনা বেগম (৪২), সানজিদা আক্তার (১৬) ও নূর মোহাম্মদ (৭)। তাদের নরসিংদী ১০০ শয্যা বিশিষ্ট হাসপালে ভর্তি করে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে। নিহতদের পরিবারের বরাতে হাইওয়ে পুলিশ জানায়, বৃহস্পতিবার রাতে নারায়ণগঞ্জ থেকে মাইক্রোবাসে করে দুটি পরিবার সিলেটে মাজার জিয়ারতে গিয়েছিল। জিয়ারত শেষে তারা শুক্রবার রাতে নারায়ণগঞ্জ ফিরছিল। তাদের বহনকারী মাইক্রোবাসটি ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের শিবপুরের শ্রীফুলিয়া এলাকায় পৌঁছালে বিপরীত দিক থেকে আসা সিলেটগামী একটি ট্রাকের সঙ্গে মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে মাইক্রোবাসটি একেবারে দুমড়ে-মুচড়ে যায়। ঘটনাস্থলেই চালকসহ তিনজন নিহত হন। পরে ৯৯৯ এর মাধ্যমে খবর পেয়ে দুর্ঘটনাস্থলে এসে আহতদের উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠায় ফায়ার সার্ভিস।

ইটাখোলা হাইওয়ে পুলিশের উপ-পরিদর্শক (এসআই) আবুল খায়ের বলেন, বেপরোয়া গতি ও ওভারটেকিং এর কারণে এই দুর্ঘটনা ঘটেছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। আমরা ট্রাক ও মাইক্রোবাস জব্দ করে থানায় নিয়ে এসেছি। আর মরদেহগুলো নরসিংদী সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। স্বজনরা মরদেহগুলো বিনা ময়নাতদন্তে নিয়ে যাওয়ার আবেদন করেছে। ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানানো হয়েছে, নির্দেশক্রমে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

এর আগে নরসিংদীর রায়পুরায় ট্রাক ও সিএনজি অটোরিকশার সংঘর্ষে ৩ জন নিহত হয়েছে। এঘটনায় আহত হয়েছে আরও ৩ জন। শুক্রবার (১৫ সেপ্টেম্বর) রাত পৌনে ১০ টার দিকে উপজেলার ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের  ভিটিমরজালের শিমুলতলী এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ভৈরব হাইওয়ে মডেল থানার এসআই তপর উদ্দিন।

নিহতরা হলো- দোলনা বেগম রায়পুরা উপজেলার উত্তর বাখরনগর ইউনিয়নের বড়চর গ্রামের মো: কাসেম মিয়ার স্ত্রী, তার নাতি আরিয়ান ও বেলাব উপজেলার ধুকুন্দি গ্রামের রানা মিয়া। ঢাকা-সিলেট মহাসড়কে প্রাণ যায় ছয় যাত্রীর। পৃথক এই দূর্ঘটনায় আহত হয় আরে ১০ জন। 

নরসিংদীর ১০০ শয্যা বিশিষ্ট হাসপালের আরএমও ডা. পলাশ মোল্লা বলেন, সড়ক দুর্ঘটনায় আহতদের হাসপালে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে। আর নিহতদের লাশ নরসিংদী সদর হাসপালের মর্গে পাঠানো হয়েছে।