ঢাকা , শুক্রবার, ২৪ মে ২০২৪, ১০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

প্যারিসে নির্মিত প্রথম স্থায়ী শহীদ মিনার উদ্বোধন হচ্ছে আগামী ৮ অক্টোবর

  • ডেস্ক :
  • আপডেট সময় ০২:২১ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২৩
  • 53

অনলাইন ডেস্ক : প্যারিসের বিখ্যাত সেইন্ট ডেনিস ইউনিভার্সিটির বার্নার্ড মারি স্কয়ারে বাংলাদেশের কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারের আদলে নির্মাণ করা হয়েছে শহীদ মিনার। ফলে ফ্রান্স প্রবাসী বাংলাদেশীদের দীর্ঘদিনের স্বপ্ন প্যারিসে স্থায়ী শহীদ মিনার নির্মানের পরিকল্পনা সফল হতে চলেছে। এতে করে তারা ভাষা শহীদদের ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানাতে পারবেন। আগামী (৮ অক্টোবর) দেশী-বিদেশী আমন্ত্রিত অতিথিদের উপস্থিতিতে উদ্বোধন করা হবে নবনির্মিত এই শহীদ মিনার।

শুক্রবার (২২ সেপ্টেম্বর) অল ইউরোপীয়ান বাংলাদেশ এসোসিয়েশন- আয়েবার প্যারিস সদর দপ্তরে এক সংবাদ সম্মেলনে এ কথা জানানো হয়।

সংবাদ সম্মেলনে প্রধান সমন্বয়কারী কাজী এনায়েত উল্লাহ বলেন, ভাষা শহীদদের আত্মত্যাগের মাধ্যমে অর্জিত মাতৃভাষা ও ইউনেস্কো স্বীকৃত একুশে ফেব্রুয়ারি আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসকে স্মৃতিকে ধরে রাখতে এবং নতুন প্রজন্মের কাছে দেশপ্রেম জাগ্রত করতে ফ্রান্সের তুলুজ শহরের পর প্যারিসে স্থায়ী শহীদ মিনার নির্মাণ অত্যন্ত আনন্দের। প্যারিস বন্ধু মরহুম আব্দুল মানিক একুশে ফেব্রুয়ারি প্যারিসে পালন শুরু করেছিলেন তার অমর কৃতিত্বকে আমরা স্মরণে রাখতে চাই।

স্থায়ী শহীদ মিনারের উদ্যোক্তা স্বরুপ সদিওল বলেন, এমন উদ্যোগ সমস্ত বাংলাদেশীদের জন্য গৌরবের। বহিঃবিশ্বে বাংলা ভাষা, কৃষ্টি ও সংস্কৃতিকে মেলে ধরবে, বাংলাদেশকে নিয়ে যাবে অন্য উচ্চতায়।

অর্থ সমন্বয়ক টিএম রেজা বলেন, দীর্ঘদিন ধরে ফ্রান্স প্রবাসী বাংলাদেশীরা অস্থায়ী শহিদ মিনারে শ্রদ্ধা জানালেও ২০২৪ সালে স্থায়ী শহীদবেদীতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানাতে পারবে ভাষা আন্দোলনে আত্মদানকারী শহীদদের।

বাংলাদেশ এসোসিয়েশন ফ্রান্সের সভাপতি সালেহ আহমদ চৌধুরী বলেন, আমরা গৌরবান্বিত, মহিমান্বিত একুশে ফেব্রুয়ারির জন্য ভাষা শহীদদের আত্মত্যাগের জন্য আজ আমরা বিশ্ব দরবারে পরিচিত।

ফ্রান্স বাংলাদেশ বিজনেস ফোরামের সাধারণ সম্পাদক সুব্রত ভট্টাচার্য শুভ বলেন, এই মহতি উদ্যোগকে যারা ত্বরান্নিত করেছেন, সময় দিয়েছেন, অর্থ দিয়েছেন আমরা তাদের কাছে চির কৃতজ্ঞ।

একুশে উদযাপন পরিষদ ফ্রান্সের সদস্য সচিব এমদাদুল হক স্বপন বলেন, প্রবাস জীবনের শত ব্যস্ততার মধ্য থেকেও দেশমাতৃকার জন্য কাজ করা আমাদের নৈতিক দায়িত্ব।

প্রসঙ্গত, প্যারিসের শহীদ মিনার নির্মাণের ব্যয় হবে ৮০ হাজার ইউরো এবং এই ব্যয়ের সিংহ ভাগ দিয়েছেন প্রধান সমন্বয়ক এবং অল ইউরোপীয়ান বাংলাদেশ আসোসিয়েশন (আয়েবা) মহাসচিব কাজী এনায়েত উল্লাহ।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন- সিনিয়র সাংবাদিক অধ্যাপক অপু আলম, দেবেশ বড়ুয়া, লুৎফুর রহমান বাবু, ইমরান মাহমুদ,আব্দুল মালেক হিমু, ফয়সাল আহমদ দ্বীপ, শাহ সুহেল, ইকবাল মোহাম্মদ জাফর, রাসেল আহমদ, সাবুল আহমদ, বাদল পাল, তাজ উদ্দিন, ফরিদ আহমদসহ বিভিন্ন গণমাধ্যমকর্মীরা।

ট্যাগস
জনপ্রিয় সংবাদ

রোহিঙ্গা শিবিরে আগুন : পুড়লো ৫ শতাধিক স্থাপনা আশ্রয়হীন হয়ে পড়েছে প্রায় আড়াই হাজারের মতো রোহিঙ্গা

প্যারিসে নির্মিত প্রথম স্থায়ী শহীদ মিনার উদ্বোধন হচ্ছে আগামী ৮ অক্টোবর

আপডেট সময় ০২:২১ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২৩

অনলাইন ডেস্ক : প্যারিসের বিখ্যাত সেইন্ট ডেনিস ইউনিভার্সিটির বার্নার্ড মারি স্কয়ারে বাংলাদেশের কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারের আদলে নির্মাণ করা হয়েছে শহীদ মিনার। ফলে ফ্রান্স প্রবাসী বাংলাদেশীদের দীর্ঘদিনের স্বপ্ন প্যারিসে স্থায়ী শহীদ মিনার নির্মানের পরিকল্পনা সফল হতে চলেছে। এতে করে তারা ভাষা শহীদদের ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানাতে পারবেন। আগামী (৮ অক্টোবর) দেশী-বিদেশী আমন্ত্রিত অতিথিদের উপস্থিতিতে উদ্বোধন করা হবে নবনির্মিত এই শহীদ মিনার।

শুক্রবার (২২ সেপ্টেম্বর) অল ইউরোপীয়ান বাংলাদেশ এসোসিয়েশন- আয়েবার প্যারিস সদর দপ্তরে এক সংবাদ সম্মেলনে এ কথা জানানো হয়।

সংবাদ সম্মেলনে প্রধান সমন্বয়কারী কাজী এনায়েত উল্লাহ বলেন, ভাষা শহীদদের আত্মত্যাগের মাধ্যমে অর্জিত মাতৃভাষা ও ইউনেস্কো স্বীকৃত একুশে ফেব্রুয়ারি আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসকে স্মৃতিকে ধরে রাখতে এবং নতুন প্রজন্মের কাছে দেশপ্রেম জাগ্রত করতে ফ্রান্সের তুলুজ শহরের পর প্যারিসে স্থায়ী শহীদ মিনার নির্মাণ অত্যন্ত আনন্দের। প্যারিস বন্ধু মরহুম আব্দুল মানিক একুশে ফেব্রুয়ারি প্যারিসে পালন শুরু করেছিলেন তার অমর কৃতিত্বকে আমরা স্মরণে রাখতে চাই।

স্থায়ী শহীদ মিনারের উদ্যোক্তা স্বরুপ সদিওল বলেন, এমন উদ্যোগ সমস্ত বাংলাদেশীদের জন্য গৌরবের। বহিঃবিশ্বে বাংলা ভাষা, কৃষ্টি ও সংস্কৃতিকে মেলে ধরবে, বাংলাদেশকে নিয়ে যাবে অন্য উচ্চতায়।

অর্থ সমন্বয়ক টিএম রেজা বলেন, দীর্ঘদিন ধরে ফ্রান্স প্রবাসী বাংলাদেশীরা অস্থায়ী শহিদ মিনারে শ্রদ্ধা জানালেও ২০২৪ সালে স্থায়ী শহীদবেদীতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানাতে পারবে ভাষা আন্দোলনে আত্মদানকারী শহীদদের।

বাংলাদেশ এসোসিয়েশন ফ্রান্সের সভাপতি সালেহ আহমদ চৌধুরী বলেন, আমরা গৌরবান্বিত, মহিমান্বিত একুশে ফেব্রুয়ারির জন্য ভাষা শহীদদের আত্মত্যাগের জন্য আজ আমরা বিশ্ব দরবারে পরিচিত।

ফ্রান্স বাংলাদেশ বিজনেস ফোরামের সাধারণ সম্পাদক সুব্রত ভট্টাচার্য শুভ বলেন, এই মহতি উদ্যোগকে যারা ত্বরান্নিত করেছেন, সময় দিয়েছেন, অর্থ দিয়েছেন আমরা তাদের কাছে চির কৃতজ্ঞ।

একুশে উদযাপন পরিষদ ফ্রান্সের সদস্য সচিব এমদাদুল হক স্বপন বলেন, প্রবাস জীবনের শত ব্যস্ততার মধ্য থেকেও দেশমাতৃকার জন্য কাজ করা আমাদের নৈতিক দায়িত্ব।

প্রসঙ্গত, প্যারিসের শহীদ মিনার নির্মাণের ব্যয় হবে ৮০ হাজার ইউরো এবং এই ব্যয়ের সিংহ ভাগ দিয়েছেন প্রধান সমন্বয়ক এবং অল ইউরোপীয়ান বাংলাদেশ আসোসিয়েশন (আয়েবা) মহাসচিব কাজী এনায়েত উল্লাহ।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন- সিনিয়র সাংবাদিক অধ্যাপক অপু আলম, দেবেশ বড়ুয়া, লুৎফুর রহমান বাবু, ইমরান মাহমুদ,আব্দুল মালেক হিমু, ফয়সাল আহমদ দ্বীপ, শাহ সুহেল, ইকবাল মোহাম্মদ জাফর, রাসেল আহমদ, সাবুল আহমদ, বাদল পাল, তাজ উদ্দিন, ফরিদ আহমদসহ বিভিন্ন গণমাধ্যমকর্মীরা।