ঢাকা , শুক্রবার, ২১ জুন ২০২৪, ৭ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

আ.লীগ ও বিএনপিকে ডিএমপির চিঠি : রাস্তা নয়, মাঠে সমাবেশের পরামর্শ

  • ডেস্ক :
  • আপডেট সময় ০৯:৫৪ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৬ অক্টোবর ২০২৩
  • 63

সিনিয়র রিপোর্টার : যারা সমাবেশের অনুমতি চেয়েছে, তাদেরকে রাস্তা বাদ দিয়ে যেকোনো মাঠে সমাবেশ করতে বলা হয়েছে বলে গণমাধ্যমকে জানিয়েছে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ(ডিএমপি)।

বৃহস্পতিবার (২৬ অক্টোবর) বিষয়টি নিশ্চিত করা হয়েছে। বলা হয়েছে, আওয়ামী লীগ ও বিএনপিকে চিঠি দেওয়া হয়েছে।

ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) কমিশনারের সিদ্ধান্ত নেওয়ার বিষয়টিও উল্লেখ করে পল্টন থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সালাহউদ্দিন মিয়া বলেন, ‘কমিশনার স্যার আমাদের কাছে এই বিষয়ে মতামত চেয়েছেন। সেই মতামত দেওয়ার জন্য ও অনুষ্ঠান চলাকালীন নিরাপত্তা পরিকল্পনা প্রণয়েনর জন্য আমরা তাদের কাছে কিছু তথ্য জানতে চেয়েছি। কিন্তু তার মানে এই নয় যে, তারা যে স্থানের জন্য আবেদন করেছেন, সেখানে তাদের সমাবেশ করার অনুমতি দেওয়া হবে না মর্মে সিদ্ধান্ত হয়েছে।’উভয় দলকে আজকের মধ্যে বিকল্প জায়গার নাম এবং যেসব তথ্য জানাতে বলা হয়েছে সেগুলো হলো-
১। সমাবেশে লোকসমাগম কখন শুরু হবে এবং সমাবেশ কখন শেষ হবে? 
২। সমাবেশে কী পরিমাণ লোকসমাগম হবে?
৩। সমাবেশটি নয়াপল্টনের কেন্দ্রীয় কার্যালয় (বিএনপির ক্ষেত্রে) বা জাতীয় মসজিদ বায়তুল মোকাররম দক্ষিণ গেটের (আওয়ামী লীগের ক্ষেত্রে) সামনে থেকে ঠিক কোন কোন স্থান পর্যন্ত বিস্তৃত হবে?
৪। সমাবেশে বক্তব্য প্রচারের জন্য কোন কোন স্থানে মাইক স্থাপন করা হবে?
৫। সমাবেশে অন্য কোনো রাজনৈতিক দলের নেতাকর্মীরা অংশগ্রহণ করবেন কি না?
৬। সমাবেশে অভ্যন্তরীণ শৃঙ্খলা রক্ষার জন্য নিজস্ব স্বেচ্ছাসেবক নিয়োগ করা হবে কি না? হলে,তার সংখ্যা কত?

ট্যাগস
জনপ্রিয় সংবাদ

মিয়ানমার থেকে গুলি হলে আমরাও পাল্টা গুলি করব : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

আ.লীগ ও বিএনপিকে ডিএমপির চিঠি : রাস্তা নয়, মাঠে সমাবেশের পরামর্শ

আপডেট সময় ০৯:৫৪ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৬ অক্টোবর ২০২৩

সিনিয়র রিপোর্টার : যারা সমাবেশের অনুমতি চেয়েছে, তাদেরকে রাস্তা বাদ দিয়ে যেকোনো মাঠে সমাবেশ করতে বলা হয়েছে বলে গণমাধ্যমকে জানিয়েছে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ(ডিএমপি)।

বৃহস্পতিবার (২৬ অক্টোবর) বিষয়টি নিশ্চিত করা হয়েছে। বলা হয়েছে, আওয়ামী লীগ ও বিএনপিকে চিঠি দেওয়া হয়েছে।

ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) কমিশনারের সিদ্ধান্ত নেওয়ার বিষয়টিও উল্লেখ করে পল্টন থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সালাহউদ্দিন মিয়া বলেন, ‘কমিশনার স্যার আমাদের কাছে এই বিষয়ে মতামত চেয়েছেন। সেই মতামত দেওয়ার জন্য ও অনুষ্ঠান চলাকালীন নিরাপত্তা পরিকল্পনা প্রণয়েনর জন্য আমরা তাদের কাছে কিছু তথ্য জানতে চেয়েছি। কিন্তু তার মানে এই নয় যে, তারা যে স্থানের জন্য আবেদন করেছেন, সেখানে তাদের সমাবেশ করার অনুমতি দেওয়া হবে না মর্মে সিদ্ধান্ত হয়েছে।’উভয় দলকে আজকের মধ্যে বিকল্প জায়গার নাম এবং যেসব তথ্য জানাতে বলা হয়েছে সেগুলো হলো-
১। সমাবেশে লোকসমাগম কখন শুরু হবে এবং সমাবেশ কখন শেষ হবে? 
২। সমাবেশে কী পরিমাণ লোকসমাগম হবে?
৩। সমাবেশটি নয়াপল্টনের কেন্দ্রীয় কার্যালয় (বিএনপির ক্ষেত্রে) বা জাতীয় মসজিদ বায়তুল মোকাররম দক্ষিণ গেটের (আওয়ামী লীগের ক্ষেত্রে) সামনে থেকে ঠিক কোন কোন স্থান পর্যন্ত বিস্তৃত হবে?
৪। সমাবেশে বক্তব্য প্রচারের জন্য কোন কোন স্থানে মাইক স্থাপন করা হবে?
৫। সমাবেশে অন্য কোনো রাজনৈতিক দলের নেতাকর্মীরা অংশগ্রহণ করবেন কি না?
৬। সমাবেশে অভ্যন্তরীণ শৃঙ্খলা রক্ষার জন্য নিজস্ব স্বেচ্ছাসেবক নিয়োগ করা হবে কি না? হলে,তার সংখ্যা কত?