ঢাকা , বৃহস্পতিবার, ২০ জুন ২০২৪, ৬ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

‘কে এলো, কে গেল তা দেখা হবে না’ বিএনপিকে ইসি আনিছ

  • ডেস্ক :
  • আপডেট সময় ১০:৪২ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৬ অক্টোবর ২০২৩
  • 65

সিনিয়র রিপোর্টার : কে এলো, কে গেল তা দেখা হবে না উল্লেখ করে নির্বাচন কমিশনার মো. আনিছুর রহমান বলেন, ‘জাতীয় নির্বাচন সাংবিধানিক নিয়মেই হবে। আমরা অচিরেই জাতীয় নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করবো। কে এলো কে গেল তা আমাদের দেখার বিষয় না। এর আগে আমরা রাজনৈতিক দলগুলোর সঙ্গে সংলাপ করেছি। কিন্তু সেখানে বিএনপি অংশ নেয়নি। আর কোনো সংলাপের সুযোগ নেই। তফসিল ঘোষণার পর বসবো কি বসবো না সেটা পরবর্তীতে সিদ্ধান্ত হবে।’

বৃহস্পতিবার (২৬ অক্টোবর) সকালে লক্ষ্মীপুর জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে লক্ষ্মীপুর-৩ আসনের উপনির্বাচন উপলক্ষে আইন-শৃঙ্খলা সংক্রান্ত মতবিনিময় সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

ইসি আনিছ বলেন, ‘আমরা অবাধ, সুষ্ঠ ও অংশগ্রহণমূলক নির্বাচন করতে চাই। সে ক্ষেত্রে সবার সহযোগিতা লাগবে। ভোটের পরিবেশে সৃষ্টি করা আমাদের দায়িত্ব, কিন্তু প্রার্থীদেরকে ভোটার উপস্থিতি করতে হবে। ভোট হবে, ভোটাররা আসবে, সেখানে অন্য কোনো কিছুর সুযোগ নেই। কেউ যদি প্রভাব খাটাতে চায়, তাহলে তা আমরা কঠোর হস্তে দমন করবো।’

জেলা প্রশাসক সুরাইয়া জাহানের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন নির্বাচন কমিশন (ইসি) সচিব মো. জাহাংগীর আলম, পুলিশ সুপার মোহাম্মদ তারেক বিন রশিদ, এনএসআই উপপরিচালক বশির উদ্দিন। অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, লক্ষ্মীপুর-৩ আসনের উপনির্বাচনের প্রার্থী ও নির্বাচন সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা।

ট্যাগস
জনপ্রিয় সংবাদ

সিলেটে বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত বিদ্যুৎ উপকেন্দ্রে সেনাবাহিনী মোতায়েন করা হয়েছে

‘কে এলো, কে গেল তা দেখা হবে না’ বিএনপিকে ইসি আনিছ

আপডেট সময় ১০:৪২ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৬ অক্টোবর ২০২৩

সিনিয়র রিপোর্টার : কে এলো, কে গেল তা দেখা হবে না উল্লেখ করে নির্বাচন কমিশনার মো. আনিছুর রহমান বলেন, ‘জাতীয় নির্বাচন সাংবিধানিক নিয়মেই হবে। আমরা অচিরেই জাতীয় নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করবো। কে এলো কে গেল তা আমাদের দেখার বিষয় না। এর আগে আমরা রাজনৈতিক দলগুলোর সঙ্গে সংলাপ করেছি। কিন্তু সেখানে বিএনপি অংশ নেয়নি। আর কোনো সংলাপের সুযোগ নেই। তফসিল ঘোষণার পর বসবো কি বসবো না সেটা পরবর্তীতে সিদ্ধান্ত হবে।’

বৃহস্পতিবার (২৬ অক্টোবর) সকালে লক্ষ্মীপুর জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে লক্ষ্মীপুর-৩ আসনের উপনির্বাচন উপলক্ষে আইন-শৃঙ্খলা সংক্রান্ত মতবিনিময় সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

ইসি আনিছ বলেন, ‘আমরা অবাধ, সুষ্ঠ ও অংশগ্রহণমূলক নির্বাচন করতে চাই। সে ক্ষেত্রে সবার সহযোগিতা লাগবে। ভোটের পরিবেশে সৃষ্টি করা আমাদের দায়িত্ব, কিন্তু প্রার্থীদেরকে ভোটার উপস্থিতি করতে হবে। ভোট হবে, ভোটাররা আসবে, সেখানে অন্য কোনো কিছুর সুযোগ নেই। কেউ যদি প্রভাব খাটাতে চায়, তাহলে তা আমরা কঠোর হস্তে দমন করবো।’

জেলা প্রশাসক সুরাইয়া জাহানের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন নির্বাচন কমিশন (ইসি) সচিব মো. জাহাংগীর আলম, পুলিশ সুপার মোহাম্মদ তারেক বিন রশিদ, এনএসআই উপপরিচালক বশির উদ্দিন। অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, লক্ষ্মীপুর-৩ আসনের উপনির্বাচনের প্রার্থী ও নির্বাচন সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা।