ঢাকা , শুক্রবার, ২৪ মে ২০২৪, ১০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

চট্টগ্রামে বাস-অ্যাম্বুলেন্স-সিএনজির মুখোমুখি সংঘর্ষে ৭ জনের মৃত্যু হয়েছে

  • ডেস্ক :
  • আপডেট সময় ০৭:২২ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ৭ নভেম্বর ২০২৩
  • 49

অনলাইন ডেস্ক :   চট্টগ্রাম-খাগড়াছড়ি মহাসড়কের হাটহাজারী উপজেলার মির্জাপুর ইউনিয়নের চারিয়া ইজতিমা মাঠের সামনে বাস, অ্যাম্বুলেন্স ও সিএনজির মুখোমুখি সংঘর্ষে ৭ জনের মৃত্যু হয়েছে বলে নিশ্চিত করেছেন মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মনিরুজ্জামান।

মঙ্গলবার (৭ নভেম্বর) বেলা ১২টার দিকে এ দুর্ঘটনা ঘটে। স্থানীয় প্রত্যক্ষদর্শীরা ধারণা করছেন, নিহতদের সঙ্গে থাকা প্যাকেট দেখে পটিয়া নিবাসী। তারা জানান, ‘পদক্ষেপ’ নামে ফটিকছড়িগামী একটি বাস সিএনজিকে চাপা দেয়। এতে ঘটনাস্থলে তিনজন নারী ও তাদের তিন শিশু সন্তান ও একজন পুরুষসহ একই পরিবারের সাতজনের মৃত্যু হয়। এ ঘটনায় আহত দুজনকে চট্টগ্রাম মেডিকেলে নেওয়া হয়েছে।

ঘটনাস্থলে র‌্যাব, ফায়ার সার্ভিস ও পুলিশ সদস্যরা উপস্থিত হয়েছেন। হাটহাজারী মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মনিরুজ্জামান বলেন, ‘আমরা ঘটনাস্থলে আছি। লাশগুলো উদ্ধার করার কাজ চলছে। তবে এখনও নিহতদের পরিচয় শনাক্ত করা সম্ভব হয়নি।’

ট্যাগস
জনপ্রিয় সংবাদ

ধেয়ে আসছে ঘূর্ণিঝড় রেমাল : সতর্কতায় উপকূলে মাইকিং করেছে কোস্ট গার্ডের সদস্যরা

চট্টগ্রামে বাস-অ্যাম্বুলেন্স-সিএনজির মুখোমুখি সংঘর্ষে ৭ জনের মৃত্যু হয়েছে

আপডেট সময় ০৭:২২ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ৭ নভেম্বর ২০২৩

অনলাইন ডেস্ক :   চট্টগ্রাম-খাগড়াছড়ি মহাসড়কের হাটহাজারী উপজেলার মির্জাপুর ইউনিয়নের চারিয়া ইজতিমা মাঠের সামনে বাস, অ্যাম্বুলেন্স ও সিএনজির মুখোমুখি সংঘর্ষে ৭ জনের মৃত্যু হয়েছে বলে নিশ্চিত করেছেন মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মনিরুজ্জামান।

মঙ্গলবার (৭ নভেম্বর) বেলা ১২টার দিকে এ দুর্ঘটনা ঘটে। স্থানীয় প্রত্যক্ষদর্শীরা ধারণা করছেন, নিহতদের সঙ্গে থাকা প্যাকেট দেখে পটিয়া নিবাসী। তারা জানান, ‘পদক্ষেপ’ নামে ফটিকছড়িগামী একটি বাস সিএনজিকে চাপা দেয়। এতে ঘটনাস্থলে তিনজন নারী ও তাদের তিন শিশু সন্তান ও একজন পুরুষসহ একই পরিবারের সাতজনের মৃত্যু হয়। এ ঘটনায় আহত দুজনকে চট্টগ্রাম মেডিকেলে নেওয়া হয়েছে।

ঘটনাস্থলে র‌্যাব, ফায়ার সার্ভিস ও পুলিশ সদস্যরা উপস্থিত হয়েছেন। হাটহাজারী মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মনিরুজ্জামান বলেন, ‘আমরা ঘটনাস্থলে আছি। লাশগুলো উদ্ধার করার কাজ চলছে। তবে এখনও নিহতদের পরিচয় শনাক্ত করা সম্ভব হয়নি।’