ঢাকা , বৃহস্পতিবার, ২০ জুন ২০২৪, ৬ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

রাষ্ট্রপক্ষের আবেদনে পেছাল মির্জা ফখরুলের জামিন শুনানি : আগামী ২২ নভেম্বর ধার্য করেছেন আদালত

  • ডেস্ক :
  • আপডেট সময় ০৪:৫৯ অপরাহ্ন, সোমবার, ২০ নভেম্বর ২০২৩
  • 47

অনলাইন ডেস্ক  :  প্রধান বিচারপতির বাসভবনে হামলার অভিযোগে মামলায় কারাগারে আটক থাকা বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের জামিন শুনানি পিছিয়ে আগামী ২২ নভেম্বর ধার্য করেছেন আদালত।

সোমবার ঢাকা মহানগর দায়রা জজ আদালতের ভারপ্রাপ্ত বিচারক ফয়সাল আতিক বিন কাদেরের আদালতে মির্জা ফখরুলের জামিন শুনানির জন্য ধার্য ছিল। 

এ সময় ঢাকার মহানগর পাবলিক প্রসিকিউটর আব্দুল্লাহ আবু অসুস্থ জানিয়ে শুনানি পেছাতে সময়ের আবেদন করে রাষ্ট্রপক্ষ। আর বিচারকের কাছে এ সপ্তাহের মধ্যে শুনানির তারিখ চান মির্জা ফখরুলের আইনজীবীরা।

এ সময় বিচারক পরে তারিখ নির্ধারণ করতে চাইলে বিএনপিপন্থি আইনজীবীরা এজলাসেই পরবর্তী শুনানির তারিখ দিতে অনুরোধ করেন। এরপর বিচারক অন্য মামলার শুনানি করতে চাইলে মির্জা ফখরুলের আইনজীবীরা হট্টগোল শুরু করেন। এ সময় বিচারক ১০ মিনিটের জন্য আদালত মুলতবি ঘোষণা করে খাস কামড়ায় চলে যান। পরে আদালত মির্জা ফখরুলের জামিন শুনানির জন্য নতুন এ তারিখ ধার্য করেন।

এর আগে গত ২ নভেম্বর একই আদালতে তার পক্ষে জামিন আবেদন দাখিল করেন অ্যাডভোকেট সৈয়দ জয়নুল আবেদীন মেজবাহ। তার আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে আদালত জামিন শুনানির জন্য আজকের দিন ধার্য করেন।

এর আগে মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরকে ২৯ অক্টোবর সকাল সাড়ে ৯টার দিকে গুলশানের বাসা থেকে আটক করে নিয়ে যায় গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)।

গত ২৮ অক্টোবর বিএনপির মহাসমাবেশ চলাকালে প্রধান বিচারপতির বাসভবনে হামলা ও ভাঙচুরের অভিযোগে রমনা থানায় পুলিশ বাদী হয়ে মামলা করে। মামলায় মির্জা ফখরুল ছাড়াও দলটির স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাসসহ ৫৯ নেতাকর্মীকে আসামি করা হয়।

ট্যাগস
জনপ্রিয় সংবাদ

সিলেটে বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত বিদ্যুৎ উপকেন্দ্রে সেনাবাহিনী মোতায়েন করা হয়েছে

রাষ্ট্রপক্ষের আবেদনে পেছাল মির্জা ফখরুলের জামিন শুনানি : আগামী ২২ নভেম্বর ধার্য করেছেন আদালত

আপডেট সময় ০৪:৫৯ অপরাহ্ন, সোমবার, ২০ নভেম্বর ২০২৩

অনলাইন ডেস্ক  :  প্রধান বিচারপতির বাসভবনে হামলার অভিযোগে মামলায় কারাগারে আটক থাকা বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের জামিন শুনানি পিছিয়ে আগামী ২২ নভেম্বর ধার্য করেছেন আদালত।

সোমবার ঢাকা মহানগর দায়রা জজ আদালতের ভারপ্রাপ্ত বিচারক ফয়সাল আতিক বিন কাদেরের আদালতে মির্জা ফখরুলের জামিন শুনানির জন্য ধার্য ছিল। 

এ সময় ঢাকার মহানগর পাবলিক প্রসিকিউটর আব্দুল্লাহ আবু অসুস্থ জানিয়ে শুনানি পেছাতে সময়ের আবেদন করে রাষ্ট্রপক্ষ। আর বিচারকের কাছে এ সপ্তাহের মধ্যে শুনানির তারিখ চান মির্জা ফখরুলের আইনজীবীরা।

এ সময় বিচারক পরে তারিখ নির্ধারণ করতে চাইলে বিএনপিপন্থি আইনজীবীরা এজলাসেই পরবর্তী শুনানির তারিখ দিতে অনুরোধ করেন। এরপর বিচারক অন্য মামলার শুনানি করতে চাইলে মির্জা ফখরুলের আইনজীবীরা হট্টগোল শুরু করেন। এ সময় বিচারক ১০ মিনিটের জন্য আদালত মুলতবি ঘোষণা করে খাস কামড়ায় চলে যান। পরে আদালত মির্জা ফখরুলের জামিন শুনানির জন্য নতুন এ তারিখ ধার্য করেন।

এর আগে গত ২ নভেম্বর একই আদালতে তার পক্ষে জামিন আবেদন দাখিল করেন অ্যাডভোকেট সৈয়দ জয়নুল আবেদীন মেজবাহ। তার আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে আদালত জামিন শুনানির জন্য আজকের দিন ধার্য করেন।

এর আগে মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরকে ২৯ অক্টোবর সকাল সাড়ে ৯টার দিকে গুলশানের বাসা থেকে আটক করে নিয়ে যায় গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)।

গত ২৮ অক্টোবর বিএনপির মহাসমাবেশ চলাকালে প্রধান বিচারপতির বাসভবনে হামলা ও ভাঙচুরের অভিযোগে রমনা থানায় পুলিশ বাদী হয়ে মামলা করে। মামলায় মির্জা ফখরুল ছাড়াও দলটির স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাসসহ ৫৯ নেতাকর্মীকে আসামি করা হয়।