ঢাকা , বুধবার, ২৯ মে ২০২৪, ১৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

বিএনপি নির্বাচনে এলে ভোটের তারিখ পেছানোর বিষয়ে ভাববে ইসি

  • ডেস্ক :
  • আপডেট সময় ০৫:০১ অপরাহ্ন, সোমবার, ২০ নভেম্বর ২০২৩
  • 38

সিনিয়র রিপোর্টার : নির্বাচনে আসতে চাইলে দলটি স্পেস পাবে উল্লেখ করে নির্বাচন কমিশনার রাশেদা সুলতানা বলেছেন, বিএনপি নির্বাচনে আসতে চাইলে যদি ভোটের তারিখ পেছানোর প্রয়োজন হয় নির্বাচন কমিশন তা ভেবে দেখবে। সেই সঙ্গে আইন দেখে ভোটের পথ সৃষ্টি করা হবে।

সোমবার (২০ নভেম্বর) সকাল সাড়ে ১১টার দিকে নির্বাচন ভবনের নিজ দপ্তরে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা বলেন।

বড় একটি দলসহ আরও অনেক দল ভোটের বাইরে আছে। তারা যদি ভোটে ফিরতে চায় এই তফসিলে কি ফেরা সম্ভব বা বিএনপির জন্য কোনো বিবেচনা থাকবে? এমন প্রশ্নের জবাবে রাশেদা সুলতানা বলেন, যদি ফিরতে চায় (বিএনপি), আমার জানামতে আগেও (২০১৮ সালের নির্বাচনে) উনারা একটু পরেই এসেছিলেন এবং সুযোগটা পেয়েছিলেন। উনারা (বিএনপি) যদি আসেন, আমরা কমিশনাররা বসবো। কীভাবে কী করা যাবে নিশ্চয় আমরা আলোচনা করবো, আইন-কানুন দেখবো, তারপর যেটা সিদ্ধান্ত হয়…।

তার মানে ইসি বিবেচনা করবে- এমন প্রশ্নে রাশেদা সুলতানা বলেন, আসলে তো বিবেচনা করবোই। অবশ্যই করবো। আমরা তো চাই সব দল এসে একটা সুন্দর নির্বাচন হোক।

ইসির এই বিবেচনার মধ্যে কী পন্থা আছে- জানতে চাইলে তিনি বলেন, কী পন্থা আছে এই মুহূর্তে আমি বিস্তারিত বলতে পারবো না। আপনারা দেখেন ২০১৮ সালের নির্বাচনে আমার জানামতে উনারা এসেছিলেন। ওই নির্বাচনে কিন্তু উনাদের জন্য একটু স্পেস তৈরি করা হয়েছিল। আমরা যেভাবে আইনে আছে, সেভাবেই করবো।

ট্যাগস
জনপ্রিয় সংবাদ

সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন : অপরাধী হলে আজিজ-বেনজীরের বিচার হবে

বিএনপি নির্বাচনে এলে ভোটের তারিখ পেছানোর বিষয়ে ভাববে ইসি

আপডেট সময় ০৫:০১ অপরাহ্ন, সোমবার, ২০ নভেম্বর ২০২৩

সিনিয়র রিপোর্টার : নির্বাচনে আসতে চাইলে দলটি স্পেস পাবে উল্লেখ করে নির্বাচন কমিশনার রাশেদা সুলতানা বলেছেন, বিএনপি নির্বাচনে আসতে চাইলে যদি ভোটের তারিখ পেছানোর প্রয়োজন হয় নির্বাচন কমিশন তা ভেবে দেখবে। সেই সঙ্গে আইন দেখে ভোটের পথ সৃষ্টি করা হবে।

সোমবার (২০ নভেম্বর) সকাল সাড়ে ১১টার দিকে নির্বাচন ভবনের নিজ দপ্তরে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা বলেন।

বড় একটি দলসহ আরও অনেক দল ভোটের বাইরে আছে। তারা যদি ভোটে ফিরতে চায় এই তফসিলে কি ফেরা সম্ভব বা বিএনপির জন্য কোনো বিবেচনা থাকবে? এমন প্রশ্নের জবাবে রাশেদা সুলতানা বলেন, যদি ফিরতে চায় (বিএনপি), আমার জানামতে আগেও (২০১৮ সালের নির্বাচনে) উনারা একটু পরেই এসেছিলেন এবং সুযোগটা পেয়েছিলেন। উনারা (বিএনপি) যদি আসেন, আমরা কমিশনাররা বসবো। কীভাবে কী করা যাবে নিশ্চয় আমরা আলোচনা করবো, আইন-কানুন দেখবো, তারপর যেটা সিদ্ধান্ত হয়…।

তার মানে ইসি বিবেচনা করবে- এমন প্রশ্নে রাশেদা সুলতানা বলেন, আসলে তো বিবেচনা করবোই। অবশ্যই করবো। আমরা তো চাই সব দল এসে একটা সুন্দর নির্বাচন হোক।

ইসির এই বিবেচনার মধ্যে কী পন্থা আছে- জানতে চাইলে তিনি বলেন, কী পন্থা আছে এই মুহূর্তে আমি বিস্তারিত বলতে পারবো না। আপনারা দেখেন ২০১৮ সালের নির্বাচনে আমার জানামতে উনারা এসেছিলেন। ওই নির্বাচনে কিন্তু উনাদের জন্য একটু স্পেস তৈরি করা হয়েছিল। আমরা যেভাবে আইনে আছে, সেভাবেই করবো।