ঢাকা , রবিবার, ১৪ এপ্রিল ২০২৪, ১ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ওবায়দুল কাদের বলেন  : প্রয়োজন না হলে জোটে যাবে না আওয়ামী লীগ

  • ডেস্ক :
  • আপডেট সময় ০৩:২৯ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৫ নভেম্বর ২০২৩
  • 31
অনলাইন ডেস্ক : দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে প্রয়োজন না হলে আওয়ামী লীগ জোটে যাবে না বলে ইঙ্গিত দিয়েছেন দলটির সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেছেন, মনোনয়নের ব্যাপারে জোট শরিকদের কথা এখনই আমরা ভাবছি না। এ বিষয়ে এখনো কোনো সিদ্ধান্ত হয়নি। প্রয়োজন না হলে জোট নয়। শনিবার (২৫ নভেম্বর) দুপুরে আওয়ামী লীগ সভাপতিন ধানমন্ডির রাজনৈতিক কার্যালয়ে থেকে বের হয়ে যাওয়ার সময় সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা জানান।
ওবায়দুল কাদের বলেন, জোটের বিষয়টি তখনই আসে, যখন আমাদের বিপরীতে বড় জোট হয়। তাছাড়া আমরা অহেতুক কেন জোট করবো? প্রয়োজন না থাকলে তো জোট করার দরকার নেই। যাদের নিয়ে জোট করবো, তাদের তো মানুষের কাছে গ্রহণযোগ্যতা থাকবে হবে।নতুন-পুরাতন মিলিয়ে আওয়ামী লীগ মনোনয়ন দিচ্ছে উল্লেখ করে কাদের বলেন, যেখানে পুরাতনরা জনগণের কাছে গ্রহণযোগ্যতা হারিয়েছে, সেখানে তো আমাদের নতুন করে ভাবতে হবে। যাতে আমরা ইলেকটেবল ক্যান্ডিডেট পাই। আমরা দেখবো কাকে মনোনয়ন দিলে জনগণের কাছে অধিকতর গ্রহণযোগ্য হবে। তাকেই মনোনয়ন দেবো।

ট্যাগস
জনপ্রিয় সংবাদ

শনিবার  ডিএমপি’র  কমিশনার হাবিবুর রহমান জানিয়েছেন : পহেলা বৈশাখে জঙ্গি হামলার আশঙ্কা নেই

ওবায়দুল কাদের বলেন  : প্রয়োজন না হলে জোটে যাবে না আওয়ামী লীগ

আপডেট সময় ০৩:২৯ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৫ নভেম্বর ২০২৩
অনলাইন ডেস্ক : দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে প্রয়োজন না হলে আওয়ামী লীগ জোটে যাবে না বলে ইঙ্গিত দিয়েছেন দলটির সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেছেন, মনোনয়নের ব্যাপারে জোট শরিকদের কথা এখনই আমরা ভাবছি না। এ বিষয়ে এখনো কোনো সিদ্ধান্ত হয়নি। প্রয়োজন না হলে জোট নয়। শনিবার (২৫ নভেম্বর) দুপুরে আওয়ামী লীগ সভাপতিন ধানমন্ডির রাজনৈতিক কার্যালয়ে থেকে বের হয়ে যাওয়ার সময় সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা জানান।
ওবায়দুল কাদের বলেন, জোটের বিষয়টি তখনই আসে, যখন আমাদের বিপরীতে বড় জোট হয়। তাছাড়া আমরা অহেতুক কেন জোট করবো? প্রয়োজন না থাকলে তো জোট করার দরকার নেই। যাদের নিয়ে জোট করবো, তাদের তো মানুষের কাছে গ্রহণযোগ্যতা থাকবে হবে।নতুন-পুরাতন মিলিয়ে আওয়ামী লীগ মনোনয়ন দিচ্ছে উল্লেখ করে কাদের বলেন, যেখানে পুরাতনরা জনগণের কাছে গ্রহণযোগ্যতা হারিয়েছে, সেখানে তো আমাদের নতুন করে ভাবতে হবে। যাতে আমরা ইলেকটেবল ক্যান্ডিডেট পাই। আমরা দেখবো কাকে মনোনয়ন দিলে জনগণের কাছে অধিকতর গ্রহণযোগ্য হবে। তাকেই মনোনয়ন দেবো।