ঢাকা , বুধবার, ১৭ এপ্রিল ২০২৪, ৪ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

নির্বাচন থেকে সরে গেলেন প্রতিমন্ত্রী জাকির ও তার ছেলে সাফায়াত বিন জাকিরসহ ৩ জন

  • ডেস্ক :
  • আপডেট সময় ০৮:৩৬ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৩০ নভেম্বর ২০২৩
  • 36
অনলাইন ডেস্ক : আসন্ন দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে কুড়িগ্রাম-৪ (রৌমারী, রাজীবপুর ও চিলমারী) আসনে মনোনয়নপত্র দাখিল করেননি প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী মো. জাকির হোসেন ও তার ছেলে সাফায়াত বিন জাকিরসহ ৩ জন। অপরদিকে দাখিল করেছেন ১৪ জন প্রার্থী।  বৃহস্পতিবার (৩০ নভেম্বর) সকাল ১০ থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত উৎসব মুখর পরিবেশে রিটার্নিং কর্মকর্তা ও সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তার কাছে মনোনয়নপত্র দাখিল করেন তারা।
জানা গেছে, রৌমারীতে ৯ জন, রাজীবপুরে ১ জন, চিলমারী উপজেলায় ১ জন ও কুড়িগ্রামে ৩ জন প্রার্থীসহ মোট ১৪ জন প্রার্থী মনোনয়নপত্র দাখিল করেছেন। তারা হলেন কেন্দ্রীয় জাতীয় পার্টি জেপির পেসিডিয়াম সদস্য ও কুড়িগ্রাম জেলা জাতীয় পার্টি জেপির সভাপতি এবং সাবেক সংসদ সদস্য রুহুল আমিন (বাইসাইকেল), কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের তথ্য ও গবেষণাবিষয়ক উপ-কমিটির সদস্য বিপ্লব হাসান (নৌকা), রৌমারী উপজেলা জাতীয় পার্টির সাধারণ সম্পাদক একেএম সাইফুর রহমান (লাঙ্গল), কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের মোহাম্মদ আবু শামীম হাবীব (গামছা), রৌমারী উপজেলা জাকের পার্টির সাধারণ সম্পাদক শাহ আলম (গোলাপ ফুল), রৌমারী উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সিনিয়র সহসভাপতি শহিদুল ইসলাম শালু (স্বতন্ত্র), কুড়িগ্রাম জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য মাছুম ইকবাল (স্বতন্ত্র), রৌমারী উপজেলার যাদুরচর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি ও সাবেক উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মজিবুর রহমান বঙ্গবাসী (স্বতন্ত্র), রৌমারী উপজেলার বন্দবেড় ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক আবু হানিফ (স্বতন্ত্র), রাজীবপুর উপজেলা জাতীয় পার্টির সহসভাপতি শাহ মো. নুর-ই শাহী ফুল (স্বতন্ত্র), চিলমারী উপজেলা আওয়ামী লীগ নেতা ডা. ফারুকুল ইসলাম (স্বতন্ত্র), ও জাহিদ হাসান। 
এ ছাড়া কুড়িগ্রাম জেলা রিটার্নিং কর্মকর্তার কাছে জোবাইদুল ইসলাম বাদল (স্বতন্ত্র), বাংলাদেশ কংগ্রেসের আব্দুল হামিদ (ডাব), তৃণমূল বিএনপির আতিকুর রহমান মনোনয়নপত্র দাখিল করেছেন। কুড়িগ্রাম জেলা প্রশাসক ও রিটার্নিং কর্মকর্তা সাইদুল আরিফ জানান, কুড়িগ্রাম-৪ আসনে মোট ১৮ জন মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করলেও দাখিল করেছেন ১৪ জন। এর মধ্যে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী মো. জাকির হোসেন ও তার ছেলে সাফায়াত বিন জাকির এবং বাংলাদেশ সুপ্রিম পার্টির মেহেরউল্যাহ সেলিম মনোনয়নপত্র দাখিল করেননি। মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করার পরও জমা না দেওয়ার বিষয়ে জানতে চাইলে প্রতিমন্ত্রী জাকির হোসেন বলেন, আমি সরকারের প্রতিমন্ত্রী এবং উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি। আমি দলের বাইরে নই। আমার ভক্তরা আমাকে ভালোবেসে মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছিলেন। তাদের আমি বুঝিয়েছি যে দলের সিদ্ধান্তের বাইরে যাওয়া যাবে না। ফলে মনোনয়নপ্রত্র জমা দেওয়া হয়নি।

 

ট্যাগস
জনপ্রিয় সংবাদ

দাওয়াত না পেয়ে বিয়ে বাড়িতে হামলা : অভিযুক্ত মেম্বার জেলহাজতে

নির্বাচন থেকে সরে গেলেন প্রতিমন্ত্রী জাকির ও তার ছেলে সাফায়াত বিন জাকিরসহ ৩ জন

আপডেট সময় ০৮:৩৬ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৩০ নভেম্বর ২০২৩
অনলাইন ডেস্ক : আসন্ন দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে কুড়িগ্রাম-৪ (রৌমারী, রাজীবপুর ও চিলমারী) আসনে মনোনয়নপত্র দাখিল করেননি প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী মো. জাকির হোসেন ও তার ছেলে সাফায়াত বিন জাকিরসহ ৩ জন। অপরদিকে দাখিল করেছেন ১৪ জন প্রার্থী।  বৃহস্পতিবার (৩০ নভেম্বর) সকাল ১০ থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত উৎসব মুখর পরিবেশে রিটার্নিং কর্মকর্তা ও সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তার কাছে মনোনয়নপত্র দাখিল করেন তারা।
জানা গেছে, রৌমারীতে ৯ জন, রাজীবপুরে ১ জন, চিলমারী উপজেলায় ১ জন ও কুড়িগ্রামে ৩ জন প্রার্থীসহ মোট ১৪ জন প্রার্থী মনোনয়নপত্র দাখিল করেছেন। তারা হলেন কেন্দ্রীয় জাতীয় পার্টি জেপির পেসিডিয়াম সদস্য ও কুড়িগ্রাম জেলা জাতীয় পার্টি জেপির সভাপতি এবং সাবেক সংসদ সদস্য রুহুল আমিন (বাইসাইকেল), কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের তথ্য ও গবেষণাবিষয়ক উপ-কমিটির সদস্য বিপ্লব হাসান (নৌকা), রৌমারী উপজেলা জাতীয় পার্টির সাধারণ সম্পাদক একেএম সাইফুর রহমান (লাঙ্গল), কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের মোহাম্মদ আবু শামীম হাবীব (গামছা), রৌমারী উপজেলা জাকের পার্টির সাধারণ সম্পাদক শাহ আলম (গোলাপ ফুল), রৌমারী উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সিনিয়র সহসভাপতি শহিদুল ইসলাম শালু (স্বতন্ত্র), কুড়িগ্রাম জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য মাছুম ইকবাল (স্বতন্ত্র), রৌমারী উপজেলার যাদুরচর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি ও সাবেক উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মজিবুর রহমান বঙ্গবাসী (স্বতন্ত্র), রৌমারী উপজেলার বন্দবেড় ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক আবু হানিফ (স্বতন্ত্র), রাজীবপুর উপজেলা জাতীয় পার্টির সহসভাপতি শাহ মো. নুর-ই শাহী ফুল (স্বতন্ত্র), চিলমারী উপজেলা আওয়ামী লীগ নেতা ডা. ফারুকুল ইসলাম (স্বতন্ত্র), ও জাহিদ হাসান। 
এ ছাড়া কুড়িগ্রাম জেলা রিটার্নিং কর্মকর্তার কাছে জোবাইদুল ইসলাম বাদল (স্বতন্ত্র), বাংলাদেশ কংগ্রেসের আব্দুল হামিদ (ডাব), তৃণমূল বিএনপির আতিকুর রহমান মনোনয়নপত্র দাখিল করেছেন। কুড়িগ্রাম জেলা প্রশাসক ও রিটার্নিং কর্মকর্তা সাইদুল আরিফ জানান, কুড়িগ্রাম-৪ আসনে মোট ১৮ জন মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করলেও দাখিল করেছেন ১৪ জন। এর মধ্যে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী মো. জাকির হোসেন ও তার ছেলে সাফায়াত বিন জাকির এবং বাংলাদেশ সুপ্রিম পার্টির মেহেরউল্যাহ সেলিম মনোনয়নপত্র দাখিল করেননি। মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করার পরও জমা না দেওয়ার বিষয়ে জানতে চাইলে প্রতিমন্ত্রী জাকির হোসেন বলেন, আমি সরকারের প্রতিমন্ত্রী এবং উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি। আমি দলের বাইরে নই। আমার ভক্তরা আমাকে ভালোবেসে মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছিলেন। তাদের আমি বুঝিয়েছি যে দলের সিদ্ধান্তের বাইরে যাওয়া যাবে না। ফলে মনোনয়নপ্রত্র জমা দেওয়া হয়নি।