ঢাকা , বুধবার, ১৭ এপ্রিল ২০২৪, ৪ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

আ.লীগের জনসভায় ১ জন নিহত হয়েছেন : পুলিশের দাবি হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন

  • ডেস্ক :
  • আপডেট সময় ১০:৩৭ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ৩০ ডিসেম্বর ২০২৩
  • 27
অনলাইন ডেস্ক : বরিশালে আওয়ামী লীগের জনসভায় যোগ দিতে আসা পঙ্কজ নাথের অনুসারীদের ওপর হামলার ঘটনায় সিরাজ সিকদার (৫৮) নামে একজন নিহত হয়েছেন। শুক্রবার (২৯ ডিসেম্বর) দুপুরে নগরীর বঙ্গবন্ধু উদ্যানে জনসভার মাঠে এ হামলার ঘটনা ঘটে। নিহত সিরাজ বরিশালের হিজলা উপজেলার কুড়ালিয়া গ্রামের কোব্বাত সিকদারের ছেলে। পঙ্কজ নাথের অনুসারীদের দাবি, আওয়ামী লীগের আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক শাম্মী আহমেদের কর্মীরা এ হামলা চালায়। যদিও পুলিশের দাবি, নিহত ব্যক্তি হৃদ্‌রোগে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন। তবে ঘটনা তদন্তে মরদেহ মর্গে পাঠানো হয়েছে।
বরিশাল মেট্রোপলিটন কোতয়ালী মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আরিচুল হক বলেন, জনসভার মাঠে মারামারির খবর শুনেছি। তবে সিরাজ নামে যে ব্যক্তির মৃত্যু হয়েছে তিনি হৃদ্‌রোগে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছে বলে প্রাথমিকভাবে চিকিৎসকরা ধারণা করছেন। ঘটনা তদন্ত করে আমরা ব্যবস্থা নেব। মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে।
আহত সোহাগ জানান, মেহেন্দীগঞ্জে আমরা এমপি পঙ্কজ নাথের রাজনীতি করি। আজ আমাদের নেত্রী শেখ হাসিনা আসায় তার জনসভায় যোগ দেই। মাঠে প্রবেশ করতেই ডা. শাম্মী আহমেদের কর্মীরা আমাদের মিছিলের ওপর হামলা চালিয়ে আমাদের ১৫/১৬ জনকে আহত করেন। উপজেলা ছাত্রলীগের কর্মী রেহান বলেন, শাম্মী আহমেদের মনোনয়ন বাতিল হওয়ায় সেই ক্ষোভে পঙ্কজ নাথের কর্মীদের মারধর করে আমাদের মাথা ফাটিয়ে দিয়েছে।
তবে ড. শাম্মী আহমেদের অনুসারী হিজলা উপজেলা কৃষকলী‌গের সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ মঞ্জুর মোর্শেদ সিরাজ সিকদারকে তাদের কর্মী দাবি করে বলেন, দুপক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ শুরু হলে একজন নিচে পড়ে গিয়ে অসুস্থ হয়ে পড়ে। তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নেওয়ার পর চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।
ট্যাগস
জনপ্রিয় সংবাদ

দাওয়াত না পেয়ে বিয়ে বাড়িতে হামলা : অভিযুক্ত মেম্বার জেলহাজতে

আ.লীগের জনসভায় ১ জন নিহত হয়েছেন : পুলিশের দাবি হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন

আপডেট সময় ১০:৩৭ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ৩০ ডিসেম্বর ২০২৩
অনলাইন ডেস্ক : বরিশালে আওয়ামী লীগের জনসভায় যোগ দিতে আসা পঙ্কজ নাথের অনুসারীদের ওপর হামলার ঘটনায় সিরাজ সিকদার (৫৮) নামে একজন নিহত হয়েছেন। শুক্রবার (২৯ ডিসেম্বর) দুপুরে নগরীর বঙ্গবন্ধু উদ্যানে জনসভার মাঠে এ হামলার ঘটনা ঘটে। নিহত সিরাজ বরিশালের হিজলা উপজেলার কুড়ালিয়া গ্রামের কোব্বাত সিকদারের ছেলে। পঙ্কজ নাথের অনুসারীদের দাবি, আওয়ামী লীগের আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক শাম্মী আহমেদের কর্মীরা এ হামলা চালায়। যদিও পুলিশের দাবি, নিহত ব্যক্তি হৃদ্‌রোগে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন। তবে ঘটনা তদন্তে মরদেহ মর্গে পাঠানো হয়েছে।
বরিশাল মেট্রোপলিটন কোতয়ালী মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আরিচুল হক বলেন, জনসভার মাঠে মারামারির খবর শুনেছি। তবে সিরাজ নামে যে ব্যক্তির মৃত্যু হয়েছে তিনি হৃদ্‌রোগে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছে বলে প্রাথমিকভাবে চিকিৎসকরা ধারণা করছেন। ঘটনা তদন্ত করে আমরা ব্যবস্থা নেব। মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে।
আহত সোহাগ জানান, মেহেন্দীগঞ্জে আমরা এমপি পঙ্কজ নাথের রাজনীতি করি। আজ আমাদের নেত্রী শেখ হাসিনা আসায় তার জনসভায় যোগ দেই। মাঠে প্রবেশ করতেই ডা. শাম্মী আহমেদের কর্মীরা আমাদের মিছিলের ওপর হামলা চালিয়ে আমাদের ১৫/১৬ জনকে আহত করেন। উপজেলা ছাত্রলীগের কর্মী রেহান বলেন, শাম্মী আহমেদের মনোনয়ন বাতিল হওয়ায় সেই ক্ষোভে পঙ্কজ নাথের কর্মীদের মারধর করে আমাদের মাথা ফাটিয়ে দিয়েছে।
তবে ড. শাম্মী আহমেদের অনুসারী হিজলা উপজেলা কৃষকলী‌গের সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ মঞ্জুর মোর্শেদ সিরাজ সিকদারকে তাদের কর্মী দাবি করে বলেন, দুপক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ শুরু হলে একজন নিচে পড়ে গিয়ে অসুস্থ হয়ে পড়ে। তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নেওয়ার পর চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।