ঢাকা , বুধবার, ১৭ এপ্রিল ২০২৪, ৪ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

গণভবনে ডাক পেলেন সংরক্ষিত নারী আসনে ১৫৪৯ মনোনয়নপ্রত্যাশীরা

  • ডেস্ক :
  • আপডেট সময় ০৫:৩৭ অপরাহ্ন, শনিবার, ১০ ফেব্রুয়ারী ২০২৪
  • 19

সিনিয়র রিপোর্টার : তৃণমূল আওয়ামী লীগের পর এবার গণভবনে ডাক পেলেন দ্বাদশ জাতীয় সংসদের সংরক্ষিত মহিলা আসনে আওয়ামী লীগের ১ হাজার ৫৪৯ জনমনোনয়নপ্রত্যাশী। আগামী (১৪ ফেব্রুয়ারি) বুধবার সকালে আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার সঙ্গে সাক্ষাৎ করবেন তারা।

শনিবার (১০ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে গণমাধ্যমে পাঠানো আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক বিপ্লব বড়ুয়ার সই করা সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

এদিন সকালে স্থানীয় সরকার নির্বাচনকে কেন্দ্র করে গণভবনে আওয়ামী লীগ সভাপতির সাক্ষাৎ পেয়েছেন সংসদ সদস্য থেকে শুরু করে উপজেলার নেতারা ৷ আসন্ন উপজেলা নির্বাচনকে কেন্দ্র করে কোনো সংঘাত যেনো না হয়, সে বিষয়ে সবাইকে নির্দেশনা দেন দলীয় প্রধান।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, আগামী ১৪ ফেব্রুয়ারি সকাল ১০টায় আওয়ামী লীগ সভাপতি এবং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকারি বাসভবন গণভবনে দ্বাদশ জাতীয় সংসদে সংরক্ষিত মহিলা আসনে দলের মনোনয়নপ্রত্যাশীদের সাক্ষাৎকার অনুষ্ঠিত হবে। এক্ষেত্রে প্রার্থীদের গণভবনে প্রবেশের জন্য মনোনয়নপত্রের স্লিপ অংশটুকু প্রদর্শন করতে হবে।

মনোনয়নপত্র বিক্রির শেষ দিন বৃহস্পতিবার বিকাল ৪টায় ব্রিফিংয়ে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেন, দ্বাদশ জাতীয় সংসদের সংরক্ষিত নারী আসনে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন ফরম কিনেছেন ১ হাজার ৫৪৯ জন। সংরক্ষিত আসনের নির্বাচন উপলক্ষ্যে মোট ৭ কোটি ৭৪ লাখ ৫০ হাজার টাকার মনোনয়ন ফরম বিক্রি করেছে দলটি। ৫০টি আসনের মধ্যে ৪৮টি আসনে মনোনয়ন দেবে আওয়ামী লীগ।

মঙ্গলবার (৬ ফেব্রুয়ারি) থেকে ফরম বিক্রি কার্যক্রম শুরু করে দলটি। প্রথম দিন ২১৭টি মনোনয়ন ফরম বিক্রি করে দলটি। দ্বিতীয় দিন বুধবার (৭ ফেব্রুয়ারি) ৫২২টি ফরম বিক্রি করা হয়। তৃতীয় ও শেষ দিন (৮ ফেব্রুয়ারি) ফরম বিক্রি হয় ৮১০টি। বিক্রি চলে বিকাল ৪টা পর্যন্ত। ঢাকা বিভাগ থেকে ১৬৭টি, ময়মনসিংহ বিভাগ থেকে ৪৭টি, চট্টগ্রাম বিভাগ থেকে ৭৮টি, সিলেট বিভাগ থেকে ২২টি, বরিশাল বিভাগ থেকে ৩৬ টি, খুলনা বিভাগ থেকে ৬৮টি, রংপুর বিভাগ থেকে ৬০টি এবং রাজশাহী বিভাগ থেকে ৪৪টি মনোনয়ন ফরম বিক্রি হয়।

নির্বাচন বিধি অনুযায়ী, সংসদ নির্বাচনের ফলাফলের গেজেট হওয়ার ৩০ কার্যদিবসের মধ্যে সংরক্ষিত মহিলা আসনে নির্বাচনে রাজনৈতিক দল বা জোটের সদস্যদের পৃথক তালিকা প্রস্তুত করার বাধ্যবাধকতা রয়েছে।

জাতীয় সংসদের ৫০টি সংরক্ষিত নারী আসনে নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করেছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। তফসিল অনুযায়ী, ভোট হবে আগামী ১৪ মার্চ। অবশ্য সংরক্ষিত নারী আসনে সাধারণত নিজেদের প্রাপ্য আসনগুলোয় একক প্রার্থী মনোনয়ন দেয় দল বা জোটগুলো। ফলে এখানে ভোটের প্রয়োজন হয় না।

প্রসঙ্গত- সাধারণ নির্বাচনে রাজনৈতিক দল বা জোটগুলোর পাওয়া আসনের বিপরীতে সংখ্যানুপাতে সংরক্ষিত নারী আসন বণ্টন করা হয়। এবার আওয়ামী লীগ জয় পেয়েছে ২২৩টি আসনে। স্বতন্ত্র সংসদ সদস্যরা নির্বাচিত হয়েছেন ৬২টি আসনে। তারা সংরক্ষিত নারী আসনে প্রার্থী মনোনয়নে আওয়ামী লীগকে সমর্থন দিয়েছেন। আওয়ামী লীগের নেতৃত্বাধীন জোটের শরিক দুটি দল দুটি আসন পেয়েছে। তারাও আওয়ামী লীগের সঙ্গে জোট করেছে। ফলে আওয়ামী লীগ পাচ্ছে ৪৮টি আসন। অন্যদিকে জাতীয় পার্টি ১১টি আসনে জয় পেয়েছে। তারা দুটি সংরক্ষিত নারী আসন পাবে।

ট্যাগস
জনপ্রিয় সংবাদ

দাওয়াত না পেয়ে বিয়ে বাড়িতে হামলা : অভিযুক্ত মেম্বার জেলহাজতে

গণভবনে ডাক পেলেন সংরক্ষিত নারী আসনে ১৫৪৯ মনোনয়নপ্রত্যাশীরা

আপডেট সময় ০৫:৩৭ অপরাহ্ন, শনিবার, ১০ ফেব্রুয়ারী ২০২৪

সিনিয়র রিপোর্টার : তৃণমূল আওয়ামী লীগের পর এবার গণভবনে ডাক পেলেন দ্বাদশ জাতীয় সংসদের সংরক্ষিত মহিলা আসনে আওয়ামী লীগের ১ হাজার ৫৪৯ জনমনোনয়নপ্রত্যাশী। আগামী (১৪ ফেব্রুয়ারি) বুধবার সকালে আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার সঙ্গে সাক্ষাৎ করবেন তারা।

শনিবার (১০ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে গণমাধ্যমে পাঠানো আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক বিপ্লব বড়ুয়ার সই করা সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

এদিন সকালে স্থানীয় সরকার নির্বাচনকে কেন্দ্র করে গণভবনে আওয়ামী লীগ সভাপতির সাক্ষাৎ পেয়েছেন সংসদ সদস্য থেকে শুরু করে উপজেলার নেতারা ৷ আসন্ন উপজেলা নির্বাচনকে কেন্দ্র করে কোনো সংঘাত যেনো না হয়, সে বিষয়ে সবাইকে নির্দেশনা দেন দলীয় প্রধান।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, আগামী ১৪ ফেব্রুয়ারি সকাল ১০টায় আওয়ামী লীগ সভাপতি এবং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকারি বাসভবন গণভবনে দ্বাদশ জাতীয় সংসদে সংরক্ষিত মহিলা আসনে দলের মনোনয়নপ্রত্যাশীদের সাক্ষাৎকার অনুষ্ঠিত হবে। এক্ষেত্রে প্রার্থীদের গণভবনে প্রবেশের জন্য মনোনয়নপত্রের স্লিপ অংশটুকু প্রদর্শন করতে হবে।

মনোনয়নপত্র বিক্রির শেষ দিন বৃহস্পতিবার বিকাল ৪টায় ব্রিফিংয়ে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেন, দ্বাদশ জাতীয় সংসদের সংরক্ষিত নারী আসনে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন ফরম কিনেছেন ১ হাজার ৫৪৯ জন। সংরক্ষিত আসনের নির্বাচন উপলক্ষ্যে মোট ৭ কোটি ৭৪ লাখ ৫০ হাজার টাকার মনোনয়ন ফরম বিক্রি করেছে দলটি। ৫০টি আসনের মধ্যে ৪৮টি আসনে মনোনয়ন দেবে আওয়ামী লীগ।

মঙ্গলবার (৬ ফেব্রুয়ারি) থেকে ফরম বিক্রি কার্যক্রম শুরু করে দলটি। প্রথম দিন ২১৭টি মনোনয়ন ফরম বিক্রি করে দলটি। দ্বিতীয় দিন বুধবার (৭ ফেব্রুয়ারি) ৫২২টি ফরম বিক্রি করা হয়। তৃতীয় ও শেষ দিন (৮ ফেব্রুয়ারি) ফরম বিক্রি হয় ৮১০টি। বিক্রি চলে বিকাল ৪টা পর্যন্ত। ঢাকা বিভাগ থেকে ১৬৭টি, ময়মনসিংহ বিভাগ থেকে ৪৭টি, চট্টগ্রাম বিভাগ থেকে ৭৮টি, সিলেট বিভাগ থেকে ২২টি, বরিশাল বিভাগ থেকে ৩৬ টি, খুলনা বিভাগ থেকে ৬৮টি, রংপুর বিভাগ থেকে ৬০টি এবং রাজশাহী বিভাগ থেকে ৪৪টি মনোনয়ন ফরম বিক্রি হয়।

নির্বাচন বিধি অনুযায়ী, সংসদ নির্বাচনের ফলাফলের গেজেট হওয়ার ৩০ কার্যদিবসের মধ্যে সংরক্ষিত মহিলা আসনে নির্বাচনে রাজনৈতিক দল বা জোটের সদস্যদের পৃথক তালিকা প্রস্তুত করার বাধ্যবাধকতা রয়েছে।

জাতীয় সংসদের ৫০টি সংরক্ষিত নারী আসনে নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করেছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। তফসিল অনুযায়ী, ভোট হবে আগামী ১৪ মার্চ। অবশ্য সংরক্ষিত নারী আসনে সাধারণত নিজেদের প্রাপ্য আসনগুলোয় একক প্রার্থী মনোনয়ন দেয় দল বা জোটগুলো। ফলে এখানে ভোটের প্রয়োজন হয় না।

প্রসঙ্গত- সাধারণ নির্বাচনে রাজনৈতিক দল বা জোটগুলোর পাওয়া আসনের বিপরীতে সংখ্যানুপাতে সংরক্ষিত নারী আসন বণ্টন করা হয়। এবার আওয়ামী লীগ জয় পেয়েছে ২২৩টি আসনে। স্বতন্ত্র সংসদ সদস্যরা নির্বাচিত হয়েছেন ৬২টি আসনে। তারা সংরক্ষিত নারী আসনে প্রার্থী মনোনয়নে আওয়ামী লীগকে সমর্থন দিয়েছেন। আওয়ামী লীগের নেতৃত্বাধীন জোটের শরিক দুটি দল দুটি আসন পেয়েছে। তারাও আওয়ামী লীগের সঙ্গে জোট করেছে। ফলে আওয়ামী লীগ পাচ্ছে ৪৮টি আসন। অন্যদিকে জাতীয় পার্টি ১১টি আসনে জয় পেয়েছে। তারা দুটি সংরক্ষিত নারী আসন পাবে।