ঢাকা , রবিবার, ২৩ জুন ২০২৪, ৯ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

মিয়ানমারের আর কাউকে দেশে ঢুকতে দেওয়া হবে না : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

  • ডেস্ক :
  • আপডেট সময় ০১:২৯ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ১৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৪
  • 29

সিনিয়র রিপোর্টার : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান বলেছেন, মিয়ানমারের সেনাবাহিনীসহ অনেকে বাংলাদেশে প্রবেশ করছে। তারা সবাই জীবন রক্ষার জন্য এসেছে, যুদ্ধের জন্য নয়। আগামীতে রোহিঙ্গা বা যেই আসুক, মিয়ানমারের কাউকে দেশে ঢুকতে দেওয়া হবে না। মিয়ানমার থেকে পালিয়ে আসা সৈন্যদের ফেরত নেওয়ার জন্য পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে জানানো হয়েছিল। আশা করছি দুই-একদিনের মধ্যেই তাদের ফেরত পাঠানো হবে।

মঙ্গলবার (১৩ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে রাজারবাগ পুলিশ লাইন্সের বাংলাদেশ পুলিশ অডিটোরিয়ামে হাইওয়ে পুলিশের ‘সেবা সপ্তাহ-২০২৪’ উদ্বোধনী অনুষ্ঠান শেষে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা বলেন।

আরেক প্রশ্নের জবাবে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‌‘সীমান্তে আমাদের বিজিবি, পুলিশ, কোস্টগার্ড- সবাই অতন্দ্র প্রহরীর মতো কাজ করছে। মিয়ানমার সীমান্তে যুদ্ধ হচ্ছে। তাই এই সীমানা দিয়ে তাদের কেউ আসবে বলে মনে হচ্ছে না। তারপরেও যদি আসে, আমাদের এখানে কেউ প্রবেশ করতে পারবে না।’

গণহত্যায় যারা যুক্ত ছিলেন তারাও আমাদের দেশে প্রবেশ করেছে। তাদের কোনো তথ্য আছে কিনা জানতে চাইলে আসাদুজ্জামান খান বলেন, আমাদের কাছে এ ধরনের কোনো লিস্ট নেই। তবে আমরা সে সময় দেখেছি মাইলের পর মাইল পুড়িয়ে দেওয়া হয়েছে, নদীতে মরদেহ ভেসে আসছে। সেখানে যে গণহত্যা চালাতে আমরা দেখেছি সে সময় তাদের আর্মি দাঁড়ানো ছিল। তবে তারাই গণহত্যা করেছে কি না জানিনা। আন্তর্জাতিক আদালতে এটার বিচার চলছে।

বিএনপির প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘সংসদে বিএনপির কোনো অস্তিত্ব নেই। সুতরাং তারা বিরোধী দল নয়। বিএনপি দেশে সব সময় অস্থিতিশীল পরিস্থিতি সৃষ্টি করতে চায়। তবে পুলিশ সচেষ্ট ছিল বলে তাদের পরিকল্পনা সফল হয়নি।’

অনুষ্ঠানে পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি) চৌধুরী আব্দুল্লাহ আল-মামুন বলেন, ‘দেশবিরোধী যেকোনো রকমের অপচেষ্টা রুখে দিতে প্রস্তুত রয়েছে পুলিশ। দেশের সার্বিক পরিস্থিতি ও মানুষের জানমাল রক্ষাই পুলিশের মূল লক্ষ্য।’   

ট্যাগস
জনপ্রিয় সংবাদ

র‌্যাবকে যেসব নির্দেশনা দিলেন নতুন ডিজি

মিয়ানমারের আর কাউকে দেশে ঢুকতে দেওয়া হবে না : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

আপডেট সময় ০১:২৯ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ১৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৪

সিনিয়র রিপোর্টার : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান বলেছেন, মিয়ানমারের সেনাবাহিনীসহ অনেকে বাংলাদেশে প্রবেশ করছে। তারা সবাই জীবন রক্ষার জন্য এসেছে, যুদ্ধের জন্য নয়। আগামীতে রোহিঙ্গা বা যেই আসুক, মিয়ানমারের কাউকে দেশে ঢুকতে দেওয়া হবে না। মিয়ানমার থেকে পালিয়ে আসা সৈন্যদের ফেরত নেওয়ার জন্য পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে জানানো হয়েছিল। আশা করছি দুই-একদিনের মধ্যেই তাদের ফেরত পাঠানো হবে।

মঙ্গলবার (১৩ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে রাজারবাগ পুলিশ লাইন্সের বাংলাদেশ পুলিশ অডিটোরিয়ামে হাইওয়ে পুলিশের ‘সেবা সপ্তাহ-২০২৪’ উদ্বোধনী অনুষ্ঠান শেষে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা বলেন।

আরেক প্রশ্নের জবাবে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‌‘সীমান্তে আমাদের বিজিবি, পুলিশ, কোস্টগার্ড- সবাই অতন্দ্র প্রহরীর মতো কাজ করছে। মিয়ানমার সীমান্তে যুদ্ধ হচ্ছে। তাই এই সীমানা দিয়ে তাদের কেউ আসবে বলে মনে হচ্ছে না। তারপরেও যদি আসে, আমাদের এখানে কেউ প্রবেশ করতে পারবে না।’

গণহত্যায় যারা যুক্ত ছিলেন তারাও আমাদের দেশে প্রবেশ করেছে। তাদের কোনো তথ্য আছে কিনা জানতে চাইলে আসাদুজ্জামান খান বলেন, আমাদের কাছে এ ধরনের কোনো লিস্ট নেই। তবে আমরা সে সময় দেখেছি মাইলের পর মাইল পুড়িয়ে দেওয়া হয়েছে, নদীতে মরদেহ ভেসে আসছে। সেখানে যে গণহত্যা চালাতে আমরা দেখেছি সে সময় তাদের আর্মি দাঁড়ানো ছিল। তবে তারাই গণহত্যা করেছে কি না জানিনা। আন্তর্জাতিক আদালতে এটার বিচার চলছে।

বিএনপির প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘সংসদে বিএনপির কোনো অস্তিত্ব নেই। সুতরাং তারা বিরোধী দল নয়। বিএনপি দেশে সব সময় অস্থিতিশীল পরিস্থিতি সৃষ্টি করতে চায়। তবে পুলিশ সচেষ্ট ছিল বলে তাদের পরিকল্পনা সফল হয়নি।’

অনুষ্ঠানে পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি) চৌধুরী আব্দুল্লাহ আল-মামুন বলেন, ‘দেশবিরোধী যেকোনো রকমের অপচেষ্টা রুখে দিতে প্রস্তুত রয়েছে পুলিশ। দেশের সার্বিক পরিস্থিতি ও মানুষের জানমাল রক্ষাই পুলিশের মূল লক্ষ্য।’