ঢাকা , মঙ্গলবার, ১৬ এপ্রিল ২০২৪, ২ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

চট্টগ্রামে গুদামে আগুন আরও ৬-৭লাখ টন চিনি আছে, বাজারে প্রভাব পড়বেনা : এস আলম গ্রুপ

  • ডেস্ক :
  • আপডেট সময় ০৬:৪৮ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ৫ মার্চ ২০২৪
  • 23
অনলাইন ডেস্ক :  গুদামে আগুন লেগে এক লাখ টন অপরিশোধিত চিনি পুড়ে গেলেও এর প্রভাব বাজারে পড়বে না বলে আশ্বস্ত করেছেন এস আলম গ্রুপের জিএম (কর্মাশিয়াল) মো. আকতার হাসান। মঙ্গলবার (৫ মার্চ) দুপুরে পুড়ে যাওয়া গুদাম দেখতে এসে এ কথা জানান তিনি।  
গতকাল সোমবার বিকালে চট্টগ্রামের কর্ণফুলী নদীর দক্ষিণপাড়ে ইছানগর এলাকায় অবস্থিত এস আলম রিফাইন্ড সুগার মিলের একটি গুদামে আগুন লাগে। ফায়ার সার্ভিসের ১৫টি ইউনিট প্রায় সাড়ে ছয় ঘণ্টার চেষ্টায় রাত সাড়ে ১০ টার দিকে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। কিন্তু মঙ্গলবার দুপুর পর্যন্ত তা পুরোপুরি নেভানো যায়নি।  এ ব্যাপারে গ্রুপের জিএম (কর্মাশিয়াল) আকতার হাসান বলেন, ‌‘অত্যন্ত বেদনার সঙ্গে জানাচ্ছি, গতকাল বিকালে আগুন লেগেছে, এখনো আগুন নেভানো যায়নি। এখানে প্রত্যেকে কাজ করছে।’
তিনি আরও বলেন, ‘কীভাবে হল এবং ক্ষয়ক্ষতি কত—তা এখন আমরা বলতে পারছি না। তবে এটা নিশ্চিত করতে পারি, আসন্ন রমজানে বাজারে প্রভাব পড়বে না। আমাদের এখনও ১০-১৫ দিনের মত ফিনিশড (পরিশোধিত) চিনি হাতে আছে।’  আকতার হাসান বলেন, ‘আশা করি, দুয়েক দিনের মধ্যে আমরা আবার বাজারে ফিরে আসব। আমাদের পাইপলাইনে ৬-৭ লাখ টন চিনি আছে। শুধু একটি গোডাউন পুড়েছে। আরও চারটি গোডাউন আছে। তাই বাজারে এর কোনো প্রভাব পড়বে না।’
কোম্পানির কর্মকর্তারা বলছেন, রোজার মাস সামনে রেখে মিলের চারটি গুদামে মোট চার লাখ টন অপরিশোধিত চিনি মজুদ করা হয়েছিল। পরিশোধনের পর ওই চিনি বাজারে যাওয়ার কথা। এর মধ্যে ১ নম্বর গুদামের এক লাখ টন চিনি পুড়ে গেছে। 
ট্যাগস
জনপ্রিয় সংবাদ

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন : ‘শুভ নববর্ষ’ ১৪৩১ : নতুন বছর মুক্তিযুদ্ধবিরোধী অপশক্তির বিরুদ্ধে লড়াইয়ে প্রেরণা জোগাবে

চট্টগ্রামে গুদামে আগুন আরও ৬-৭লাখ টন চিনি আছে, বাজারে প্রভাব পড়বেনা : এস আলম গ্রুপ

আপডেট সময় ০৬:৪৮ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ৫ মার্চ ২০২৪
অনলাইন ডেস্ক :  গুদামে আগুন লেগে এক লাখ টন অপরিশোধিত চিনি পুড়ে গেলেও এর প্রভাব বাজারে পড়বে না বলে আশ্বস্ত করেছেন এস আলম গ্রুপের জিএম (কর্মাশিয়াল) মো. আকতার হাসান। মঙ্গলবার (৫ মার্চ) দুপুরে পুড়ে যাওয়া গুদাম দেখতে এসে এ কথা জানান তিনি।  
গতকাল সোমবার বিকালে চট্টগ্রামের কর্ণফুলী নদীর দক্ষিণপাড়ে ইছানগর এলাকায় অবস্থিত এস আলম রিফাইন্ড সুগার মিলের একটি গুদামে আগুন লাগে। ফায়ার সার্ভিসের ১৫টি ইউনিট প্রায় সাড়ে ছয় ঘণ্টার চেষ্টায় রাত সাড়ে ১০ টার দিকে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। কিন্তু মঙ্গলবার দুপুর পর্যন্ত তা পুরোপুরি নেভানো যায়নি।  এ ব্যাপারে গ্রুপের জিএম (কর্মাশিয়াল) আকতার হাসান বলেন, ‌‘অত্যন্ত বেদনার সঙ্গে জানাচ্ছি, গতকাল বিকালে আগুন লেগেছে, এখনো আগুন নেভানো যায়নি। এখানে প্রত্যেকে কাজ করছে।’
তিনি আরও বলেন, ‘কীভাবে হল এবং ক্ষয়ক্ষতি কত—তা এখন আমরা বলতে পারছি না। তবে এটা নিশ্চিত করতে পারি, আসন্ন রমজানে বাজারে প্রভাব পড়বে না। আমাদের এখনও ১০-১৫ দিনের মত ফিনিশড (পরিশোধিত) চিনি হাতে আছে।’  আকতার হাসান বলেন, ‘আশা করি, দুয়েক দিনের মধ্যে আমরা আবার বাজারে ফিরে আসব। আমাদের পাইপলাইনে ৬-৭ লাখ টন চিনি আছে। শুধু একটি গোডাউন পুড়েছে। আরও চারটি গোডাউন আছে। তাই বাজারে এর কোনো প্রভাব পড়বে না।’
কোম্পানির কর্মকর্তারা বলছেন, রোজার মাস সামনে রেখে মিলের চারটি গুদামে মোট চার লাখ টন অপরিশোধিত চিনি মজুদ করা হয়েছিল। পরিশোধনের পর ওই চিনি বাজারে যাওয়ার কথা। এর মধ্যে ১ নম্বর গুদামের এক লাখ টন চিনি পুড়ে গেছে।