ঢাকা , বুধবার, ১৭ এপ্রিল ২০২৪, ৪ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের শিমরাইল মোড়ের সড়ক ৫ টাকায় মই দিয়ে পারাপার

  • ডেস্ক :
  • আপডেট সময় ০৮:৪২ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৭ মার্চ ২০২৪
  • 19

অনলাইন ডেস্ক :  মই বেয়ে বেয়ে লোকজন সড়ক পারাপার হচ্ছে! শুনতে অবাক হলেও ঘটনা আসলেই সত্যি। তাও আবার বাংলাদেশে। এমনকি এই মই দিয়ে সড়ক পার হতে প্রতিজনকে গুনতে হচ্ছে ৫ টাকা। রোববার (১৭ মার্চ) এমনই দৃশ্য দেখা গেছে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের শিমরাইল মোড়ের সড়ক ও জনপথ অধিদপ্তর অফিসের সামনে। আর এই ঘটনার একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়েছে।

ভিডিওতে দেখা যায়, সড়ক বিভাজকে হেলান দিয়ে রাখা আছে একটি মই। আর সেই মই বেয়ে নেমে সড়ক পার হচ্ছেন লোকজন। এ জন্য প্রত্যেকের কাছ থেকে নেওয়া হচ্ছে পাঁচ টাকা করে। জানা যায়, গত বছরের মাঝামাঝি সময়ে দূরপাল্লার যানবাহনগুলো সরাসরি যেন ঢাকায় যেতে পারে, সেজন্য চার লেনের ঢাকামুখী সড়কের সিদ্ধিরগঞ্জের কাঁচপুর ব্রিজ থেকে কুয়েতপ্লাজা এলাকা পর্যন্ত উঁচু বিভাজক দিয়ে দুই লেন বিভক্ত করে দেওয়া হয়। সেইসঙ্গে আঞ্চলিক যানবাহন চলাচলের জন্য আরো দুই লেন রাখা হয়। এতদিন দূরপাল্লার লেন থেকে আঞ্চলিক লেনে লোকজন চলাচলের জন্য সওজ কার্যালয়ের সামনে একটি গেট খোলা রাখা হতো। ওইখানে দূরপাল্লার যানবাহনগুলো শিমরাইল মোড়ে যাত্রীদের নামিয়ে দিতো। কিন্তু গত দুই মাস ধরে তা বন্ধ করে রেখেছে সওজ কর্তৃপক্ষ। তবে দূরপাল্লার যানবাহনগুলো এখনো ওই স্থানেই যাত্রী নামিয়ে দিচ্ছে।

গত দুই মাস ধরেই যাত্রীরা এভাবেই ঝুঁকি নিয়ে পারাপার হচ্ছেন। এ সুযোগে কয়েকজন অসাধু পরিবহন শ্রমিক বিভাজকের দুই পাশে মই দিয়ে টাকার বিনিময়ে যাত্রীদের পার করে দিচ্ছেন।

কাঁচপুর হাইওয়ে থানার শিমরাইল ক্যাম্পের টিআই একেএম শরফুদ্দিন বলেন, ‘হাইওয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে কাউকে পায়নি। আমরা খতিয়ে দেখছি কারা এসব কাজ করছেন। তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

নারায়ণগঞ্জ সড়ক ও জনপথ অধিদপ্তরের (সওজ) নির্বাহী প্রকৌশলী শাহানা ফেরদৌস বলেন, ‘এর আগেও একাধিকবার এভাবে মই বসিয়ে যাত্রী পারাপার করা হয়েছিল। পরে আমরা আনসার দিয়ে মইগুলো জব্দ করি। বিষয়টি নিয়ে হাইওয়ে পুলিশের সঙ্গে কথা হয়েছে।’

ট্যাগস
জনপ্রিয় সংবাদ

দাওয়াত না পেয়ে বিয়ে বাড়িতে হামলা : অভিযুক্ত মেম্বার জেলহাজতে

ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের শিমরাইল মোড়ের সড়ক ৫ টাকায় মই দিয়ে পারাপার

আপডেট সময় ০৮:৪২ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৭ মার্চ ২০২৪

অনলাইন ডেস্ক :  মই বেয়ে বেয়ে লোকজন সড়ক পারাপার হচ্ছে! শুনতে অবাক হলেও ঘটনা আসলেই সত্যি। তাও আবার বাংলাদেশে। এমনকি এই মই দিয়ে সড়ক পার হতে প্রতিজনকে গুনতে হচ্ছে ৫ টাকা। রোববার (১৭ মার্চ) এমনই দৃশ্য দেখা গেছে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের শিমরাইল মোড়ের সড়ক ও জনপথ অধিদপ্তর অফিসের সামনে। আর এই ঘটনার একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়েছে।

ভিডিওতে দেখা যায়, সড়ক বিভাজকে হেলান দিয়ে রাখা আছে একটি মই। আর সেই মই বেয়ে নেমে সড়ক পার হচ্ছেন লোকজন। এ জন্য প্রত্যেকের কাছ থেকে নেওয়া হচ্ছে পাঁচ টাকা করে। জানা যায়, গত বছরের মাঝামাঝি সময়ে দূরপাল্লার যানবাহনগুলো সরাসরি যেন ঢাকায় যেতে পারে, সেজন্য চার লেনের ঢাকামুখী সড়কের সিদ্ধিরগঞ্জের কাঁচপুর ব্রিজ থেকে কুয়েতপ্লাজা এলাকা পর্যন্ত উঁচু বিভাজক দিয়ে দুই লেন বিভক্ত করে দেওয়া হয়। সেইসঙ্গে আঞ্চলিক যানবাহন চলাচলের জন্য আরো দুই লেন রাখা হয়। এতদিন দূরপাল্লার লেন থেকে আঞ্চলিক লেনে লোকজন চলাচলের জন্য সওজ কার্যালয়ের সামনে একটি গেট খোলা রাখা হতো। ওইখানে দূরপাল্লার যানবাহনগুলো শিমরাইল মোড়ে যাত্রীদের নামিয়ে দিতো। কিন্তু গত দুই মাস ধরে তা বন্ধ করে রেখেছে সওজ কর্তৃপক্ষ। তবে দূরপাল্লার যানবাহনগুলো এখনো ওই স্থানেই যাত্রী নামিয়ে দিচ্ছে।

গত দুই মাস ধরেই যাত্রীরা এভাবেই ঝুঁকি নিয়ে পারাপার হচ্ছেন। এ সুযোগে কয়েকজন অসাধু পরিবহন শ্রমিক বিভাজকের দুই পাশে মই দিয়ে টাকার বিনিময়ে যাত্রীদের পার করে দিচ্ছেন।

কাঁচপুর হাইওয়ে থানার শিমরাইল ক্যাম্পের টিআই একেএম শরফুদ্দিন বলেন, ‘হাইওয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে কাউকে পায়নি। আমরা খতিয়ে দেখছি কারা এসব কাজ করছেন। তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

নারায়ণগঞ্জ সড়ক ও জনপথ অধিদপ্তরের (সওজ) নির্বাহী প্রকৌশলী শাহানা ফেরদৌস বলেন, ‘এর আগেও একাধিকবার এভাবে মই বসিয়ে যাত্রী পারাপার করা হয়েছিল। পরে আমরা আনসার দিয়ে মইগুলো জব্দ করি। বিষয়টি নিয়ে হাইওয়ে পুলিশের সঙ্গে কথা হয়েছে।’